মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রীর ১২ বছরের কারাদন্ড

63

Last Updated on

বাপ্পী দাস,মালয়েশিয়া থেকে:দুর্নীতির মামলায় ফেঁসে গেলেন মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক। তাকে দোষী সাবস্ত করে ১২ বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির একটি আদালত। এর আগে দুর্নীতির কয়েকটি মামলায় নাজিবকে দোষী সাব্যস্ত করেন আদালত।

সূত্র জানিয়েছে, নাজিবের বিরুদ্ধে বিশ্বাস ভঙ্গ, অর্থপাচার ও ক্ষমতার অপব্যবহারের মতো অভিযোগ আনা হয়েছে। তবে নাজিব তার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। মালয়েশিয়ার সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা দেশটির দুর্নীতি বিরোধী প্রতিষ্ঠানের জন্য একটি পরীক্ষা হিসেবে দেখা হচ্ছে।

ক্ষমতা অপব্যবহারের জন্য নাজিবকে ১২ বছরের কারাদণ্ড দেন আদালত। এছাড়া অর্থপাচার ও বিশ্বাস ভঙ্গের মামলায় ১০ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। দুই সাজাই পাশাপাশি চলবে। দেশটির রাষ্ট্রীয় বিনিয়োগ তহবিল (ওয়ানএমডিবি) কেলেঙ্কারির মাধ্যমে প্রতারণা এবং দুর্নীতির বৈশ্বিক একটি জাল সামনে এসেছে। এমন দুর্নীতির খবর সামনে আসার পর মালয়েশিয়ার রাজনীতিতে তোলপাড় শুরু হয়। এর মধ্যদিয়ে স্বাধীনতার পর থেকে ৬১ বছর ধরে মালয়েশিয়ায় শাসন করা নাজিবের ইউএমএনও পার্টি ক্ষমতা পর্যন্ত হারায়।

২০০৯ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় ছিলেন নাজিব। ওয়ানএমডিবি থেকে সাড়ে চার কোটি ডলার চুরিসহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। কৌঁসুলিদের দাবি, তহবিল থেকে এক কোটির বেশি ডলার তার ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্টে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।