প্রতারণাসহ নানা অপকর্মের অভিযোগে দিনাজপুর জেলা যুবলীগ নেতা গ্রেফতার

29

বালুমহল ইজারা নিয়ে দেওয়ার নাম করে অর্থ আদায়, সরকারি কর্মচারীকে ভয়ভীতি প্রদর্শন ও সরকারি কাজে বাধা প্রদানের মামলা এবং মামলা তুলে নেয়ার জন্য বাদীদের হুমকি দেওয়ার অভিযোগে দিনাজপুর জেলা যুবলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক খলিলুল্লাহ আজাদ মিল্টনকে গ্রেপ্তার করেছে খানসামা থানা পুলিশ।

দিনাজপুরে প্রতারনাসহ নানান অপকর্ম করে দীর্ঘদিন যাবৎ পলাতক থাকার পরে অবশেষে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছে দিনাজপুর জেলা যুবলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক খলিলুল্লাহ আজাদ মিল্টন। আটক মিল্টন খানসামা উপজেলার হোসেনপুর গ্রামের হাবিবুল্লাহ আজাদের ছেলে।না পুলিশ।

থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার (১৯নভেম্বর) বিকেল ৪টায় তাকে খানসামা থানায় নিয়ে এসে ৩টি মামলা ও প্যানাল কোডে ৩টি প্রসিকিউশনে গ্রেপ্তার দেখিয়েছে পুলিশ। এর আগে বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে ঢাকার মোহাম্মদপুর থানা পুলিশের সহযোগিতায় মোহাম্মদপুরের একটি বাড়ি থেকে তাকে আটক করে পুলিশ।

খানসামা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন বলেন, খলিলুল্লাহ আজাদ মিল্টনের নামে খানসামা থানায় বালুমহাল ইজারা নিয়ে দেওয়ার নাম করে অর্থ আত্মসাত এবং একজন ব্যাংক কর্মকর্তাকে ভয়ভীতি প্রদর্শন ও সরকারি কাজে বাধা প্রদানের অভিযোগে তিনটি মামলা রয়েছে। এছাড়াও মামলার বাদীদের মামলা তুলে নেওয়ার হুমকি দেওয়ায় প্যানাল কোড ৫০৪/২ এ বিজ্ঞ আদালতে ৩টি প্রসিকিউশন রয়েছে।

বৃহস্পতিবার ভোরে তাকে ঢাকা থেকে আটকের পর গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। আজ  শুক্রবার আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হবে।

জেলা যুবলীগের সভাপতি রাশেদ পারভেজ বলেন, ‘মিল্টন বিগত দিনে জেলা যুবলীগের কার্যনির্বাহী কমিটিতে সহ-সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। কিন্তু বর্তমান কমিটিতে তার কোন পদ-পদবী নেই। তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত হলে প্রশাসন আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গকারী কিংবা কোন অপরাধীর ঠিকানা জেলা যুবলীগে হবে না।’