হেফাজত নেতা মুফতি শরিফ উল্লাহকে ৭দিনের রিমান্ডে চেয়েছে ডিবি

15

রাজধানী যাত্রবাড়ী থানার বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলায় হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-প্রচার সম্পাদক মুফতি শরিফ উল্লাহকে ৭দিনের রিমান্ড চেয়েছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) দুপুর ১২টার পর রমনা থানার মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে তাকে আদালতে হাজির করেন। রিমান্ড শুনানি ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আবু সাঈদ এর আদালতে অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (এডিসি) ইফতেখায়রুল ইসলাম। তিনি জানান, ওয়ারী গোয়েন্দা বিভাগের একটি দল আজ রাতে রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর মীর হাজিরবাগ এলাকা থেকে শরিফ উল্লাহকে গ্রেফতার করেছে।

এডিসি ইফতেখায়রুল ইসলাম বলেন, মুফতি শরিফ উল্লাহ ২০১৩ সালের ৬ মে যাত্রাবাড়ী থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে দায়ের করা মামলার এজাহারনামীয় আসামি।

এদিকে, সোমবার (১১ এপ্রিল) মধ্যরাতে হেফাজতে ইসলামের সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদীকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। চট্টগ্রামের হাটহাজারী থেকে র‍্যাব ও ডিবির যৌথ অভিযানে আজিজুল হককে গ্রেফতার করা হয়।

ডিবির যুগ্ম-কমিশনার মাহবুব আলম বলেন, আজিজুল হককে গ্রেফতারের পর ঢাকায় ডিবি কার্যালয়ে আনা হয়। এরপর তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। সাম্প্রতিক সহিংসতার ঘটনা এবং ২০১৩ সালে হেফাজতের তাণ্ডবের বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।