হাওরে ফসল রক্ষা বাঁধ অনিয়ম ও দুর্নীতি

66

এমডি শহীদুল্লাহ:হাওরে ফসল রক্ষা বাঁধ নির্মাণে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। এনিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন হাওর বাঁচাও আন্দোলনের কেন্দ্রীয় কমিটি। আজ শনিবার (১৩ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টায় শহরের শহীদ জগৎজ্যোতি পাঠাগারের হলরুমে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ তোলা হয়।

এক প্রশ্নের জবাবে সংগঠনের সহ-সভাপতি সিনিয়র আইনজীবী স্বপন কুমার দাস রায় বলেন, ‘পানি উন্নয়ন বোর্ডের ফসল রক্ষা বাঁধ নির্মাণের অগ্রগতি প্রতিবেদন বাস্তবতার সঙ্গে কোনও মিল নেই। এক ফসলি হাওরের বোরো ফসল হুমকির মুখে পড়লে লাখ লাখ কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। অথচ এখন পর্যন্ত হাওরের বাঁধের ৫৫ ভাগ কাজ হয়েছে।’

লিখিত বক্তব্যে সংগঠনের সভাপতি জানান, পানি উন্নয়ন বোর্ড হাওরের ৮০ ভাগ ফসল রক্ষা বাঁধ নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার প্রতিবেদন দাখিল করলেও বাস্তবে ৫০ থেকে ৫৫ ভাগ কাজ হয়েছে। বাঁধের ঝুঁকিপূর্ণ ক্লোজারগুলো এখনও বাঁশ বস্তা দিয়ে সুরক্ষিত করা হয়নি। এ মাসের ৭ তারিখের মধ্যে বাঁধ নির্মাণের কাজ শেষ করার কথা থাকলেও এখনও অনেক বাঁধে মাটি ফেলা হচ্ছে।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বিজন সেন রায়সহ আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের সদস্যরা।

উল্লেখ্য, এ বছর হাওরের বাঁধ নির্মাণের জন্য পানি উন্নয়ন বোর্ডকে ১৩৩ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয় সরকার। ৮১১টি প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির মাধ্যমে জেলার ছোটবড় ৫২টি হাওরে ৬১৯ কিলোমিটার ফসল রক্ষাবাঁধ নির্মাণ করছে। এ পর্যন্ত ৬৬ কোটি টাকা ছাড় দিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।