স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বিরুদ্ধে রিপোর্ট করায় আমার সাথে অন্যায় হচ্ছে-রোজিনা

52

>>কথা বলতে পুলিশের বাধা. কেন জবাবে পুুলিশ জানালো নিষেধ আছে
প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলাম বলেছেন, ‘স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় নিয়ে রিপোর্ট করায় আমার সঙ্গে অন্যায় করা হচ্ছে।’

মঙ্গলবার (১৮ মে) সকাল ১০টার পর আদালতে তোলার সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। আরও খবর>>সাংবাদিক রোজিনার বিরুদ্ধে রিমাণ্ড আবেদন নামঞ্জুর (ভিডিও)

এ সময় উপস্থিত পুলিশ সদস্যরা তাকে কথা বলতে বাধা দেন। তারা বলেন, ‘কোনো কথা বলা যাবে না’। কেন কথা বলা যাবে না জানতে চাইলে পুলিশ সদস্যরা বলেন, ‘নিষেধ আছে’। এ সময় সাংবাদিকদের ধমকও দেন তারা।

গতকাল সোমবার বেলা তিনটার দিকে সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব লোকমান হোসেন মিয়ার একান্ত সচিব (পিএস) মো. সাইফুল ইসলাম ভূঞার (সিনিয়র সহকারী সচিব) কক্ষে থাকা ‘রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ নথি থেকে কাগজ সরানোর’ অভিযোগে সাড়ে পাঁচ ঘণ্টা আটকে রাখা হয় সাংবাদিক রোজিনাকে।

এরপর রাত ৯টার পরে তাকে সচিবালয় থেকে নেয়া হয় শাহবাগ থানায়। সেখানে রাত পৌনে ১২টার দিকে তার বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় মামলা করা হয়। মামলার বাদী স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব ডা. মো. শিব্বির আহমেদ ওসমানী।

মঙ্গলবার সকালে তাকে আদালতে হাজির করে ৫ দিনের রিমান্ড চান মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শাহবাগ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আরিফুর রহমান সরদার। অপর দিকে তার আইনজীবী প্রশান্ত কুমার কর্মকার তার জামিন চেয়ে আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক তার রিমান্ড আবেদন নামঞ্জুর করে জামিন শুনানির জন্য বৃহস্পতিবার দিন ধার্য করেন আদালত।