স্ত্রী হত্যায় স্বামী রিমান্ডে ,শ্বশুর- শাশুড়ী কারাগারে

32
স্বামী সাকিব আলম মিশুর সাথে হাসনা হেনা ঝিলিক

স্ত্রী হাসনা হেনা ঝিলিককে হত্যা করে প্রাইভেটকার দুর্ঘটনার নাটক সাজানোর অভিযোগের মামলায় স্বামী সাকিব আলম মিশুর তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। আর ঝিলিকের শ্বশুর–শাশুড়ীসহ চারজনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

রবিবার (৪ এপ্রিল) মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গুলশান থানার এসআই ফেরদৌস আলম সরকার ৫ আসামিকে আদালতে হাজির করেন। মিশুর ১০ দিনের রিমান্ড এবং অপর চার আসামির কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাস চন্দ্র অধিকারী এ আদেশ দেন। কারাগারে যাওয়া চার আসামি হলেন- ঝিলিকের শ্বশুর  জাহাঙ্গীর আলম, শ্বাশুড়ি সাঈদা আলম, দেবর ফাহিম আলম এবং টুকটুকি।

এদিকে আসামিদের আইনজীবীরা রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। অপর দিকে রাষ্ট্রপক্ষে সংশ্লিষ্ট থানার আদালতের সাধারন নিবন্ধন কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন এর বিরোধীতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত মিশুর রিমান্ড এবং অপর আসামিদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

তদন্ত কর্মকর্তা ফেরদৌস আলম আসামিদের ৫ কর্মচারীকে আদালতে হাজির করে সাক্ষী হিসেবে জবানবন্দি রেকর্ড করার আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাদবীর ইয়াছির আহসান চৌধুরী সাক্ষী আনিছ এবং আবু তাহের এ দুই সাক্ষীর এবং আরেক মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রে আবু সাঈদ সাক্ষী মো. আজাদ, মোছা.সকিনা বেগম এবং মোছা. আনোয়ারা বেগমের জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

উল্লেখ্য, শনিবার (৩ এপ্রিল) হাসনা হেনা ঝিলিক (২৮) নামে গৃহবধূকে হত্যা করা হয়। ওই ঘটনায় ঝিলিকের মা তাহমিনা হোসেন আসমা গুলশান থানায় হত্যা মামলাটি দায়ের করেন।