সবাইকে কাদিয়ে চিরঘুমে কবরী

63

শনিবার জোহরের নামাজ বাদে সদ্য প্রয়াত কিংবদন্তি অভিনেত্রী ও সাবেক সাংসদ সারাহ বেগম কবরীকে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। তার ছেলে শাকের চিশতি এই তথ্য জানান। এর আগে দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটে বনানী কবরস্থান মসজিদ প্রাঙ্গণে অভিনেত্রীকে রাষ্ট্রীয় উদ্যোগে গার্ড অব অনার দেয়া হয়।

১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সময় কলকাতায় গিয়ে বাংলাদেশের পক্ষে জনমত সৃষ্টি করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন কবরী। সেখানে তিনি বিভিন্ন সভা-সমিতি ও অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। এসব বিবেচনায় তাকে গার্ড অব অনার দেয় সরকার।

আরও খবর>>শেষ ইচ্ছে পূরণ হলো কবরীর

এদিকে, করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় কবরীর মরদেহ শেষ শ্রদ্ধা জানানোর জন্য ঢাকা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার বা এফডিসিতে নেয়া সম্ভব হয়নি বলে জানান তার ছেলে শাকের চিশতি। শুধু তার গুলশান ২-এর বাড়িতে কিছুক্ষণের জন্য নেয়া হয়েছিল। সেখান থেকে নেয়া হয় বনানী কবরস্থানে।

মহামারি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে শুক্রবার দিনগত রাত ১২টা ২০ মিনিটে রাজধানীর শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান অভিনেত্রী, পরিচালক ও রাজনীতিক কবরী। তিনি লাইফ সাপোর্টে ছিলেন। গত ৫ এপ্রিল তার করোনা পজিটিভ আসে। সেদিন রাতেই তাকে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

৭ এপ্রিল রাতে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসকরা তাকে আইসিইউতে নেয়ার পরামর্শ দেন। কিন্তু কুর্মিটোলা হাসপাতালে কোনো আইসিইউ বেড খালি না থাকায় ৮ এপ্রিল দুপুরে কবরীকে শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থা আরও খারাপ হলে তাকে লাইফ সাপোর্ট নেয়া হয়। শুক্রবার দিনগত রাত ১২টা ২০ মিনিটে অভিনেত্রীকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।