শ্রীলঙ্কায় করোনাভাইরাসের একটি নতুন ধরন শনাক্ত

17

>>শনাক্ত ভাইরাস বাতাসে ভেসে থাকতে সক্ষম
>>যেকোন ভাইরাসের চেয়ে এটি বেশি শক্তিশালী
শ্রীলঙ্কায় করোনাভাইরাসের একটি নতুন ধরন শনাক্ত হয়েছে যা বাতাসে ভেসে থাকতে সক্ষম এবং এ পর্যন্ত দেশটিতে পাওয়া ভাইরাসের সকল ধরনের চেয়ে বেশি শক্তিশালী। শ্রী জয়াবর্ধনপুরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমিউনোলজি অ্যান্ড মলিকিউলার সায়েন্স বিভাগের প্রধান নিলিকা মালাভিগের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়া।

মালাভিগে বলেন, ‘এই দ্বীপে পাওয়া করোনাভাইরাসের সকল ধরনের চেয়ে এই ধরনটি অনেক বেশি সংক্রামক। এটি বাতাসে ভেসে থাকতে সক্ষম। ড্রপলেটগুলো বাতাসে প্রায় এক ঘণ্টা ভেসে থাকতে পারে।’ আরও খবর>>ভারতের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ঢুকে পড়ার আশঙ্কা

স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা আশংকা করছেন, গত সপ্তাহে নববর্ষ উদযাপনের পর ধরনটি বেশি ছড়িয়ে পড়ছে এবং তরুণরা আরও বেশি আক্রান্ত হচ্ছে।

জনস্বাস্থ্য পরিদর্শক উপল রোহানা বলেন, ‘পরবর্তী দুটি ইনকিউবেশন পিরিয়ডে এই রোগটি তৃতীয় তরঙ্গে উন্নিত হতে পারে।’

এদিকে শ্রীলঙ্কার করোনাভাইরাস প্রতিরোধ মন্ত্রণালয় নতুন নির্দেশনা জারি করেছে যা আগামী ৩১ মে পর্যন্ত কার্যকর থাকবে।

এই নির্দেশনায় অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানকে ৫০ শতাংশ জনবল নিয়ে কাজ করতে বলা হয়েছে এবং সকল ধরনের জমায়েত নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

দেশটিতে মধ্য এপ্রিলে নববর্ষ উদযাপনের আগ পর্যন্ত দৈনিক সংক্রমণ ছিল দেড়শোর মতো। বর্তমানে দৈনিক প্রায় ছয়শো জন করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৯৯ হাজার ৬৯১ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৬৩৮ জনের।

স্বাস্থ্যসেবার মহাপরিচালক ডা. আসেলা গুনাবর্ধন বলেছেন, করোনা রোগীদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালগুলোতে এখনও পর্যাপ্ত আইসিইউ ব্যবস্থা রয়েছ। কিন্তু সংক্রমণ এড়াতে স্বাস্থ্য নির্দেশিকা মেনে চলা জরুরি।