শ্যামনগরে মন্দির পরিদর্শনে আসবেন নরেন্দ্র মোদি:গড়ে তোলা হয়েছে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা বলায়

23

>>সার্বিক পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে প্রায়ই আসছেন পদস্থ কর্মকর্তারা  
শ্যামনগর(সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি:ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরের সার্বিক প্রস্তুতি ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা খতিয়ে দেখতে সরকারি শীর্ষ কর্মকর্তাসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রধানরা শ্যামনগর পরিদর্শন করেছেন। প্রতিবেশী রাষ্ট্রের সরকার প্রধানের আগমনকে কেন্দ্র করে শ্যামনগরের যশোরেশ^রী মন্দিরসহ আশপাশের এলাকায় এখন রীতিমত সাজ সাজ রব পড়ে গেছে। ইতিমধ্যে মন্দির সংস্কারের কাজ সম্পন্ন হলেও মন্দিরের নগদখানা, চাতাল ও আশপাশের রাস্তা মেরামতসহ হেলিপ্যাড নির্মাণের কাজ দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলেছে।
উল্লেখ্য, আগামী ২৭ মার্চ সকালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি শ্যামনগর উপজেলার ঈশ^রীপুর ইউনিয়নের যশোরেশ^রী কালি মন্দির পরিদর্শনে আসবেন। তার সফরকে কেন্দ্র ইতিমধ্যে গোটা এলাকায় নিñিন্দ্র নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হয়েছে। এমনকি বাংলাদেশ ও ভারতের উচ্চ পর্যায়ের নিরাপত্তা কর্মকর্তাসহ ভারতীয় দূতাবাসের শীর্ষ কর্তা ব্যক্তিরা শ্যামনগর পরিদর্শন করেছেন।
নরেন্দ্র মোদির সফরকে ঘিরে সার্বিক প্রস্তুতি সরেজমিনে দেখতে প্রায় প্রতিদিন সরকারের পদস্থ কর্মকর্তারা শ্যামনগরের যশোরেশ^রী কালি মন্দির এলাকা পরিদর্শনে আসছেন। প্রস্তুতির খুঁটিনাটি পর্যবেক্ষনসহ ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীকে বরণে নানামুখী উদ্যোগ গ্রহণ করছেন তারা।
সুত্র জানিয়েছে, যশোরেশ^রী কালি মন্দির এলাকাকে নরেন্দ্র মোদীর পরিদর্শনের উপযোগী করে গড়ে তোলার সামগ্রিক দায়িত্ব বুঝে নিয়েছে এসএসএফ (স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্স)। এসএসএফ এর পক্ষ থেকে দায়িত্ব নেয়ার দিনই ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর আগমন ও পরিদর্শনকে সামনে রেখে এক দফা মহড়া দিয়ে প্রস্তুতি ঝালিয়ে নেন তারা।
এরআগে প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে গত রোববার গৃহায়ন ও গণপুর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ খন্দকার মন্দির এলাকা পরিদর্শনসহ প্রস্তুতির বিষয়ে খোঁজ খবর নেন।
এছাড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থার বিষয়ে খোঁজ খবর নিতে সোমবার র‌্যাব এর মহাপরিচালক চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন ও র‌্যাব এর অতিরিক্ত মহাপরিচালক তোফায়েল মোস্তফা সরোয়ার যশোরেশ^রী কালি মন্দির এলাকা পরিদর্শন করেন। এসময় পুলিশের এসবি’র প্রধান মনিরুল ইসলামও তাদের সাথে ছিলেন।
এদিকে গত মঙ্গলবার সকালে বিমান বাহিনীর প্রধান মন্দিরস্থলে অবতরণ না করলেও আকাশ পথে মন্দির এলাকা পরিদর্শন করেন।
সর্বশেষ গত শনিবার ভারতীয় রাষ্ট্রদূত বিক্রম দোরাইস্বামী যশোরেশ^রী মন্দির আশপাশের এলাকাসহ ঐতিহাসিক শাহী মসজিদ পরিদর্শন করে গেছেন।
ইতিমধ্যে মন্দিরের শোভাবর্ধণের পাশাপাশি মন্দিরের বিশ্রামাগার, শৌচাগার এর অসম্পুর্ণ কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। মন্দিরের প্রবেশদ্বারে স্কানার মেশিন বসানো ছাড়াও হেলিপ্যাড থেকে মন্দির পর্যন্ত রাস্তার দু’পাশে সিসি ক্যামেরা দিয়ে মুড়িয়ে ফেলা হয়েছে।
মন্দিরের প্রধান পুরোহিত দিলীপ মুখার্জী জানান, নরেন্দ্র মোদির আগমন ঘটছে শনিবার। আর মন্দিরে সপ্তাহের প্রতি শনিবার ও মঙ্গলবার পূজা দেয়ার রেওয়াজ থাকায় সেদিন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীকে নিয়েই পূজা দেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।
মন্দিরের সেবায়েত পরিবারের প্রতিনিধি হিসেবে জৌতি চট্রোপাধ্যায় জানান, বাংলাদেশের বাইরের কোন সরকার প্রধানের এটাই প্রথম শ্যামনগর তথা ঈশ^রীপুরস্থ যশোরেশ^রী কালি মন্দির পরিদর্শন। বিদেশী সরকার প্রধান মেহমানকে বরণ করতে প্রশাসনের পাশাপাশি মন্দির কমিটি সকল আয়োজন সম্পন্নের কাজ দ্রুত গুছিয়ে নিচ্ছেন।