শার্শায় অপহরণের শিকার স্কুলছাত্রীকে যশোর থেকে উদ্ধার:এক দম্পতি আটক

19

বেনাপোল(শার্শা প্রতিনিধি:যশোরের শার্শার বাগআঁচড়া থেকে অপহৃত ৭ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ৭ দিন পর যশোর আদালত চত্বর এলাকা থেকে উদ্ধার করেছে শার্শা থানা পুলিশ। এসময় অপহরণের সাথে অভিযুক্ত আকবার-রুমা দম্পতিকে আটক করা হয়।
শার্শা থানার ওসি বদরুল আলম খান প্রেসব্রিফিংয়ে জানান, গত বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার বাগআঁচড়া বাগুড়ী বেলতলা গ্রাম থেকে সপ্তম শ্রেণীর এক ছাত্রী অপহৃত হয়। পরিবারের পক্ষ থেকে বিষয়টি থানায় জানানো হয়। এরই সুত্র ধরে বুধবার গভীর রাতে যশোর আদালত চত্বর এলাকায় শার্শা থানার পুলিশ ও পিবিআই যৌথ অভিযান চালিয়ে তাকে উদ্ধার করে। অপহরণের সাথে যুক্ত থাকার অভিযোগে আকবার আলী (৪০) ও তার স্ত্রী রুমা খাতুনকে (৩২) আটক করা হয়েছে। আটক আকবর ঝিকরগাছা উপজেলার শিওরদাহ গ্রামের বজলুর রহমানের ছেলে।

এব্যাপারে শার্শা থানায় একটি নিয়মিত মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ছাত্রীর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য যশোর ২৫০শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে এবং অপহরণের সাথে যুক্ত দম্পতিকে যশোর আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে জানান ওসি বদরুল আলম।

ওই স্কুলছাত্রীর বাবা জানান, প্রায় দুই মাস আগে তাদের গ্রামে আসেন ঝিকরগাছা উপজেলার শিওরদাহ গ্রামের আকবর হোসেন ও তার স্ত্রী রুমা খাতুন। তারা তাদের বোনজামাই ওজিহার রহমানের বাড়িতে আশ্রয় নেন।
“ওজিহার আমাদের বাড়ির পাশেই বসবাস করেন। সেই সুবাদে আমাদের বাড়িতে আকবর-রুমা দম্পতির যাতায়াত ছিল।”

বৃহস্পতিবার আমি ও আমার স্ত্রী প্রতিদিনের ন্যায় বাইরে কাজে যাওয়ায় বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে আকবর-রুমা দম্পতি কৌশলে মেয়েকে ভুল বুঝিয়ে অপহরণ করে পালিয়ে যান।