শরণখোলায় সড়কে ঝরে গেল খুলনার এক ব্যবসায়ীর প্রাণ

12

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি:বাগেরহাটের শরণখোলায় একটি কাভার্ড ভ্যানের নিচে চাপা পড়ে খুলনার বাঘমারা এলাকার বাসিন্দা আ. মান্নান হোসেন রানা মজুমদারের ছেলে মো. সানি মজুমদার (২৫) নিহত হয়েছেন। তিনি থাই গ্লাসের ব্যবসা করতেন। ২২ ফেব্রুয়ারি (সোমবার) দুপুর আড়াইটার দিকে শরণখোলা- সাইনবোর্ড আঞ্চলিক মহাসড়কের সিংবাড়ী এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় ব্যবসায়ী সানির মোটর সাইকেলের পিছনে থাকা তার খালাতো ভাই মো. জান্নাতুল ফেরদৌস (২৪) ছিটকে রাস্তার বাইরে পড়ে ভাগ্যক্রমে বেঁচে গেছেন। ঘটনার পর স্থানীয়রা তাদের দু-ভাইকে উদ্ধার করে শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লে´ে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সানিকে মৃতঃ ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে শরণখোলা থানা পুলিশ তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থল থেকে কাভার্ড ভ্যানসহ তার ড্রাইভার মো. ইউনুুস হাওলাদার (৩০) আটক করেছে।
নিহত ব্যবসায়ী সানির খালা উপজেলার গোলবুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা জাহানুর বেগম বলেন, কয়েকদিন আগে সানি ব্যবসার কাজে আমাদের বাড়িতে আসে। সোমবার সকালে আমার ছেলে ফেরদৌসকে সাথে নিয়ে একটি মোটর সাইকেলে করে দুই ভাই আমড়াগাছিয়া এলাকায় যায়। ওই দিন দুপুরে বাড়ি ফেরার পথে শরণখোলা হতে ছেড়ে যাওয়া মেসার্স শুভ এণ্টারপ্রাইজ নামের ঢাকা মেট্রো-ট-২০৭৯১১ নম্বরের একটি কাভার্ড ভ্যান তাদের মোটর সাইকেলটিকে সরাসরি চাপা দেয়। এতে সানি ও ফেরদৌস গুরুতর আহত হয়। এলাকাবাসী ওদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। ফোনে দুর্ঘটনার খবর পেয়ে আমি হাসপাতালে এসে দেখি সানি আর বেঁচে নেই। আমি ওই ঘাতক ড্রাইভারের ফাঁসি চাই।
এ বিষয়ে শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্যের ডা. মো. আরিফুল ইসলাম রাকিব জানান, সানি ঘটনাস্থলেই মারা গেছে এবং ফেরদৌস শংঙ্কা মুক্ত রেেয়ছে। শরণখোলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. সাইদুর রহমান জানান, ইতিমধ্যে কাভার্ডভ্যানটি জব্দসহ ড্রাইভারকে আটক করা হয়েছে। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেলে আইনানুক ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।