যশোর জেনারেল হাসপাতালে মারপিটের ঘটনায় তোলপাড়

এবিসি নিউজ>এবিসি নিউজ>
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  05:43 PM, 15 December 2021
ফাইল ছবি

যশোর জেনারেল হাসপাতালে এক্স-রে বিভাগে কর্মরত চতুর্থ শ্রেনির কর্মচারী মেহেদীকে লাঞ্ছিত করেছেন ইন্টার্ন চিকিৎসক সোহানুর রহমান সোহানসহ তার সহযোগিরা। কথিত চিকিৎসকের হাতে দু’দফায় লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনায় তুলকালাম সৃষ্টি হয়েছে। 

 

সরেজমিনে গিয়ে জানাগেছে, দুপুর পৌনে ২ টার সময় ১৩১ নং কক্ষে হাসপাতালের চতুর্থ শ্রেনির কর্মচারী মেহেদী এক্স-রে রোগীদের জন্য সিরিয়াল এন্ট্রির দায়িত্ব পালন করছিলেন। এ সময় কথিত ইন্টার্ণ চিকিৎসক সোহানুর রহমান সোহান তার পরিচিত একজনকে নিয়ে এক্সরে করানোর জন্য ওই কক্ষে প্রবেশ করেন। মেহেদী বহিরাগত বিভিন্ন রোগীদের চাপের কারণে সোহানুর রহমান সোহানকে একটু অপেক্ষা করতে বলেন। এতে সোহানুর রহমান ক্ষুব্ধ হয়ে মেহেদীর ওপর চড়াও হন। ওই ডিপার্টমেন্টের ইনচার্জ টেকনিশিয়ান মৃত্যুঞ্জয় কুমার রায় বিষয়টি জেনে দ্রুত উক্ত ইন্টার্ণ চিকিৎসকদের কাছে ঘটনার জন্য দুই হাত জড়ো করে ক্ষমা চান এবং মেহেদীর আচারণের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। কিন্তু ইণ্টার্ন চিকিৎসক সোহান আরও চড়াও হয়ে তার কয়েকজন সহযোগী ইন্টার্ন চিকিৎসককে নিয়ে মেহেদীকে মারতে মারতে তত্ত্বাবধায়কের কাছে নিয়ে যান। তত্ত্বাবধায়কের সামনেও মারপিট করার অভিযোগ উঠেছে।

 

দুপুরের দিকে তত্ত্বাবধায়ক আখতারুজ্জামানের কক্ষে মীমাংসার জন্য একটি বৈঠক বসে। বৈঠকে বিএমএ যশোর জেলা সভাপতি কামরুল ইসলাম বেনু, সাধারণ সম্পাদক এমএ বাশার,হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক আখতারুজ্জামান, আরএমওসহ অন্যান্য চিকিৎসক উপস্থিত থেকে ঘটনার সঠিক তদন্তর প্রয়োজনীতার জন্য একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। গঠিত তদন্ত কমিটি আগামী শনিবার ঘটনার ব্যাপারে কি হয়েছে সে ব্যাপারে একটি রিপোর্ট পেশ করবেন।

তত্ত্বাবধায়কের কক্ষে ইন্টার্ণ চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি সাইফুল ইসলাম খান শিহাব, সাধারণ সম্পাদক শাহাদত হোসেন, শহর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হাসান বিপু, জেলা ছাত্র লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম জুয়েল, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সালাউদ্দিন কবি পিয়াস উপস্থিত ছিলেন।

হাসপাতালের সূত্রগুলো জানিয়েছেন, ইন্টার্ণ চিকিৎসক কর্তৃক সামান্য বিষয় নিয়ে কর্মরত কর্মচারীদের গায়ে হাত তুলায় কর্মরত কর্মচারীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তারা অবিলম্বে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

আপনার মতামত লিখুন :