যশোরে সোনা চোরাচালানীর যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড 

এবিসি নিউজ>এবিসি নিউজ>
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  05:54 PM, 13 December 2021
ফাইল ছবি

যশোরে সোনা চোরাচালান মামলায় দিলীপ বিশ্বাস নামে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড ও জরিমানার আদেশ দিয়েছে যশোরের একটি আদালত। চোরাচালানের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ না পাওয়ায় দুইজনকে খালাস দেয়া হয়েছে। আজ সোমবার স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল ২ এর বিচারক মোস্তফা কামাল এক রায়ে এ সাজা দিয়েছেন। সাজাপ্রাপ্ত দিলীপ বিশ্বাস বেনাপোলের ৩ নম্বর ঘিবা গ্রামের নরেন বিশ্বাসের ছেলে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অতিরিক্ত পিপি অ্যাডভোকেট বিমল কুমার রায়।

মামলার অভিযোগে জানা গেছে, ২০১৯ সালের ১৩ নভেম্বর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ৪৯ বিজিবির ই কোম্পানি ঘিবার সদস্যরা জানতে পারে ঘিবা মাঠ দিয়ে একজন সোনা নিয়ে ভারতে পাচারের উদ্যেশে যাবে। এ সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবি সদস্যরা জিরো লাইনের ২২ নম্বর পিলারের পাশে গোপনে অবস্থান নেন। এসময় বেলা১১ টার দিকে এক ব্যক্তিকে আসতে দেখে বিজিবি সদস্যরা তাকে থামার নির্দেশ দেয়। এর মধ্যে দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় তাকে আটক করা হয়। আটক দিলীপ বিশ্বাসের দেহ তল্লাশি করে কোমরে বিশেষ কায়দায় গামছায় মোড়ানো দুইটি সোনার বার উদ্ধার করা হয়। যার ওজন ২ কেজি। দাম ১ কোটি ৮লাখ ৮০ হাজার টাকা। এব্যাপারে বিজিবির হাবিলদার উবাইদুল্লাহ হক বাদী হয়ে চোরাচালান দমন আইনে বেনাপোল পোর্ট থানা একটি মামলা করেন। এ মামলার তদন্ত শেষে ঘটনার সাথে জড়িত থাকায় দিলীপসহ তিনজনকে আসামি করে আদালতে চার্জশিট দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই শফি আহম্মেদ রিয়েল। দীর্ঘ সাক্ষী গ্রহণ শেষে আসামি দিলীপের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক তাকে যাবজ্জীবন সশ্রম করাদন্ড, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ১ বছর সশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন। এ মামলার অপর আসামি একই গ্রামের আছের আলী ও মিন্নু হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় বিচারক তাদের খালাস দিয়েছেন। সাজাপ্রাপ্ত দিলীপ বিশ্বাস কারাগারে আটক আছে।

আপনার মতামত লিখুন :