যশোরে শিশু ছাত্রী তিশা হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে বিক্ষোভ অবরোধ

এবিসি বাংলা ডেস্কএবিসি বাংলা ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  05:08 PM, 05 March 2019

গ্রেফতার নেই খুনি। ‍কোতয়ালি মডেল থানার ওসি বললেন প্রশাসনের ওপর আস্থা রাখুন

এবিসি নিউজ:যশোরে শিশুছাত্রী আফরিন তিশা হত্যাকান্ডে এখনো কেউ গ্রেফতার হয়নি। পুলিশ বলছে খুনিকে সনাক্ত করা গেছে। গ্রেফতার এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র।

এদিকে শিশু তিশা হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে ও খুনি গ্রেফতার করে দ্রুত বিচারের দাবিতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখিয়েছে এলাকাবাসী।

যশোরে নিখোঁজ শিশুছাত্র তিশার বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার

মঙ্গলবার সকাল ১০টা-১১টা টানা এক ঘন্টা যশোর শহরতলীর ধর্মতলায় যশোর-ঝিনাইদহ সড়ক অবরোধ করে শিশুসহ এলাকার বিভিন্ন বয়সের নারী-পুরুষ। এসময় তারা বিক্ষোভ দেখায় এবং স্লোগান দিয়ে অনতি বিলম্বে খুনি শনাক্ত করে আটক ও বিচারের দাবি জানান।

উন্নতির দিকে সেতু
মন্ত্রীর শারীরিক অবস্থা

তিশার মা জোসনা খাতুন ও বাবা তরিকুল ইসলাম মানববন্ধনে অংশ নিয়ে অঝোরে কেঁদেছেন। কথা আফরিন তিশার বস্তাবন্দি লাশ শহরের গাজীপাড়ার নিজ বাড়ির কাছ থেকে সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে উদ্ধার হয়। স্থানীয়রা মাটির নিচেই কি পুতা রয়েছে দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে যশোর আড়াইশ বেড হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

নিহত তিশা ওই এলাকার অটোরিকশা চালক তরিকুল ইসলামের মেয়ে ও স্থানীয় কারবালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

কোতোয়ালি থানার ওসি অপূর্ব হাসান বলেন, “তিশাকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় তৃষার বাবা তরিকুল ইসলাম মামলা করেছেন। পুলিশ সন্দেহভাজন খুনিকে শনাক্ত করেছে। তাকে আটক করতে অভিযান চলছে।”তিনি এলাকাবাসীকে প্রশাসনের ওপর আস্থা রাখার আহ্বান জানিয়েছেন।

রোববার তিশা কোরআন পড়ে এসে বাড়ির পাশে খেলতে গিয়ে আর ফেরেনি। শিশু কন্যার নিখোঁজ হওয়ার পরই শহরে তার সন্ধ্যানে মাইকিং করা হয়।

এর একদিন পর বাড়ির পাশ থেকে পুতে রাখা মরদেহ উদ্ধার হয়।

আপনার মতামত লিখুন :