যশোরে পেঁয়াজের কেজিতে কমলো ২০ টাকা

ভারতীয় পেঁয়াজ বেনাপোলে আসার খবরে -দাবি বিক্রেতার

বিশেষ প্রতিবেদকবিশেষ প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  03:59 PM, 23 March 2022
ফাইল ছবি

ভারতীয় পেঁয়াজ বেনাপোল বন্দরে আনলোড করার খবরে যশোরে এক লাফে প্রতিকেজিতে দাম কমেছে ২০ টাকা। মঙ্গল ও বুধবার যশোরের বাজারে পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হতে দেখা গেছে ২০ টাকা দরে। এরআগে প্রতিকেজি পেঁয়াজ ৩৫ থেকে ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

দেড় বছর বন্ধ থাকার পর গত ৩দিনে ভারত থেকে এক হাজার ৯১ টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে। বেনাপোল বন্দর দিয়ে এসব পেঁয়াজ আমদানি করা হয়েছে।

আজ বুধবার (২৩ মার্চ) দুপুরে বেনাপোল বন্দরের উপ-পরিচালক (ট্রাফিক) মামুন কবীর তরফদার জানান, রোববার ৮৫০ টন ৮৭৮ কেজি, সোমবার ১৭৫ টন ৪৪০ কেজি ও মঙ্গলবার ৬৪ টন ৪০০ কেজি পেঁয়াজ বন্দরে এসেছে।

দেশের অন্যান্য বন্দর দিয়ে কমবেশি পেঁয়াজ আমদানি হলেও আইপিসহ নানান জটিলতায় এতদিন বেনাপোল বন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ ছিল-যোগ করেন এই কর্মকর্তা।

জাহাঙ্গীর আলম নামে এক আমদানিকারক জানান, প্রকারভেদে প্রতি টন ১১১ ডলার থেকে ৩০০ ডলার পর্যন্ত মূল্যে ভারত থেকে আমদানি হচ্ছে। প্রতি কেজি পেঁয়াজে ২ টাকা ৭৫ পয়সা শুল্ককর দিতে হচ্ছে । বেনাপোল বন্দর থেকে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ২৬-২৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

আবু জাফর চাকরি করেন মেসার্স গাজী ইন্টারন্যাশনালে। তিনি   জানান, ২৯ মার্চের মধ্যে পেঁয়াজ আমদানি শেষ করতে নির্দেশনা দিয়েছে কৃষি মন্ত্রণালয়। এতে আগের এলসির কেনা পেঁয়াজ দ্রুত আমদানি শেষ করতে হচ্ছে।

বেনাপোল বন্দরের উপ-পরিচালক (ট্রাফিক) মামুন কবীর তরফদার জানান, ব্যবসায়ীরা যাতে দ্রুত পেঁয়াজ খালাস করতে পারেন, সে বিষয়ে সবাইকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এদিকে যশোরের বাজারে এক লাফে প্রতিকেজিতে নেমেছে ১৫ থেকে ২০ টাকা পর্যন্ত। আব্দুর লোকমান নামে এক বিক্রেতা জানান, পেঁয়াজ লোকসানে বিক্রি করতে হচ্ছে। তিনি বলেন, ভারতীয় পেঁয়াজ বাজারে ঢুকলে দাম আরও কমতে পারে-শঙ্কা থেকে লোকসানে বিক্রি করতে হচ্ছে।

নাহার বানু নামে এক ক্রেতা জানান, রমজানকে সামনে রেখে পেঁয়াজের দাম কমে আসায় স্বস্তিবোধ করছি। তিনি বাজার নিয়ন্ত্রণে প্রশাসনের নজরদারি বৃদ্ধির দাবি করেন।

অর্থনীতি

আপনার মতামত লিখুন :