যশোরসহ দক্ষিণাঞ্চলে পুলিশের মাস্ক বিতরণ

17

এবিসি ডেস্ক:করোনা রোধে যশোরে ১৫ হাজার মাস্ক বিতরণ করেছে পুলিশ। একইসাথে শহরে সচেতনতামূলক র‌্যালি বের করে জেলা পুলিশ। এছাড়াও সারাদেশের ন্যায় যশোরসহ দক্ষিণাঞ্চলে পুলিশের উদ্যোগে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের মধ্যে মাস্ক বিতরণ করার খবর পাওয়া গেছে। একই সাথে জনসচেতনতায় লিফলেট বিতরণ ও র‌্যালি করা হয়েছে।

যশোর:রবিবার সকাল সাড়ে ১০টায় পুলিশ সুপার কার্যালয়ে খুলনা বিভাগের ডিআইজি ড. খন্দকার মহিউদ্দিন যশোরের সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় ও পরিবহন শ্রমিকদের মাঝে এই ১৫ হাজার মাস্ক বিতরণ করেন।
পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়াদারের সভাপতিত্বে মাস্ক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডিআইজি বলেন, মাস্ক পড়া, হ্যান্ড স্যানিটাউজার ব্যবহার ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চললে আমরা করোনা অনেকটা প্রতিরোধ করতে পারবো। প্রয়োজন ছাড়া কেউ বাহিরে না যাই সেই দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। মাস্ক ছাড়া কোন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বা সেবামূলক প্রতিষ্ঠানে সেবা না দেয়ার জন্য আহবান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ সালাউদ্দিন শিকদার, তৌহিদুল ইসলাম, গোলাম রাব্বানী, জুয়েল ইমরানসহ বিভিন্ন পেশাজীবী, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, দুপুর সাড়ে ১২টায় শহরের দড়াটানা থেকে সচেতনতামূলক র‌্যালি বের করে জেলা পুলিশ। পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদার ও জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খানের নেতৃত্বে সহস্রাধিক পুলিশ সদস্য র‌্যালিতে অংশ নেন।

এছাড়া র‌্যালিতে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলনসহ রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন পেশাজীবী, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় সংগঠনের নেতৃবৃন্দ অংশ নেন। র‌্যালি থেকে পথচারীদের মাস্ক বিতরণও করা হয়। একইসাথে করোনা প্রতিরোধে সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে আহবান জানানো হয়।

ঝিকরগাছা পৌর প্রতিনিধি জানান, সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে যশোরের ঝিকরগাছায় মাস্ক বিতরণ করেছে পুলিশ। থানা পুলিশের সার্বিক সহযোগিতায় রবিবার (২১ মার্চ) ঝিকরগাছা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় এই মাস্ক বিতরণ করা হয়। এসময় বাস, ট্রাকসহ বিভিন্ন ধরণের যানবাহনের চালক, হেলপার, যাত্রী ও পথচারীদের মধ্যে মাস্ক বিতরণ করা হয়। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ রোধে নিজেকে এবং পরিবারকে সুরক্ষিত রাখতে জনসাধারণকে সরকারি নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান পুলিশ কর্মকর্তারা।
এ সময় সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন, ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম, পৌর মেয়র মোস্তফা আনোয়ার পাশা জামাল, ঝিকরগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রাজ্জাক, উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি রমজান শরীফ বাদশা, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান মুসা, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লুবনা তাক্ষী, বীর মুক্তিযোদ্ধা লেয়াকত আলী, দুলাল অধিকারী, জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আজাহার আলীসহ থানার কর্মকর্তারা। থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক জনসচেতনতায় পুলিশের এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে জানান।

মহেশপুর(ঝিনাইদহ)প্রতিনিধি জানান, ঝিনাইদহের মহেশপুর থানা পুলিশের উদ্যোগে করোনা মোবেলায় প্রচারণা র‌্যালি ও মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে। সারাদেশের ন্যায় মহেশপুরেও এই কর্মসূচি পালিত হয়েছে।
রোববার সকালে কলেজ বাসস্ট্যান্ডে আলোচনা সভা শেষে মহেশপুর থানা পুলিশের আয়োজনে র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে থানা চত্বরে শেষ হয়। মহেশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে করোনা মোবেলায় প্রচারণা র‌্যালি ও মাস্ক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কোটচাদপুর সার্কেল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহায়মিনুল ইসলাম, মহেশপুর পৌর সভার মেয়র আব্দুর রশিদ খাঁন, ইন্সপেক্টর তদন্ত রাশেদুল আলম, পৌর কাউন্সিলর কাজি আতিয়ার রহমান, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক ইয়াকুব আলী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আমিনুর রহমান প্রমুখ। এসময় মহেশপুর থানা পুলিশের পক্ষ থেকে অটোরিক্সা চালক ও পথচারীদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করা হয়।

বেনাপোল প্রতিনিধি জানান, শার্শা ও বেনাপোল থানা পুলিশ র‌্যালি সমাবেশ লিফলেট ও মাস্ক বিতরণ করেছে। রবিবার বেলা ১১টায় নাভারণ ও বেনাপোলে সচেতনতামুলক বক্তব্য শেষে ভ্যান বাইক মোটরসাইকেল গণপরিবহনে মাস্ক লিফলেট বিতরণ করা হয়। এসময় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদ সদস্য ইব্রাহীম খলিল। এছাড়া শার্শা থানা অফিসার ইনচার্জ বদরুল আলম খান, ওসি তদন্ত তারিকুল আলম, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফফর হোসেন ও উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি বৈদ্যনাথ বাবু প্রমুখ।