ময়মনসিংহের সড়কে ঝরে গেল নবজাতকসহ ৭জনের প্রাণ

267

সুমন ঘোষ/এমডি শহীদুল্লাহ,ময়মনসিংহ ব্যুরো:জেলার তারাকান্দা উপজেলায় বাস ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার সংঘর্ষে সড়কে ঝরে গেল এক পরিবারের ৬জনসহ ৭জনের প্রাণ। একই পরিবারের নিহত জনের মধ্যে এক নবজাতক শিশু রয়েছে। নিহত অপরজন দুর্ঘটনাকবলিত অটোরিকশার চালক ছিলেন।

রোববার (৩ জানুয়ারি) দুপুরে নেত্রকোনা রোডের গাছতলা বাজার এলাকা এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, ময়মনসিংহ-নেত্রকোনা আঞ্চলিক মহাসড়কে বাসের সঙ্গে সংঘর্ষে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় চালকসহ ৭জন ছিলেন। পথের মধ্যে শাহজালাল পরিবহনের একটি বাস অটোরিকশাকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে ৬ নিহত হন। বাকি একজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার পর মৃত্যু হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরের দিকে শহরের শম্ভুগঞ্জ ব্রিজ থেকে একটি অটোরিকশা গৌরীপুরে যাচ্ছিল। বিপরীত দিক থেকে ঢাকাগামী একটি বাস অটোরিকশাকে ধাক্কা দিয়ে টেনে-হিঁচড়ে নিয়ে যায়।

নিহতরা হলেন, পূর্বধলা উপজেলার আগিয়া এলাকার মাওলানা ফারুক আহম্মেদ (৪০), তার স্ত্রী মাসুমা খাতুন (২৫), বোন জুলেখা খাতুন (৫০), ভাই নিজাম উদ্দিন (৩৫), ভাবি জোৎস্না বেগম (৪৫) ও ফারুক-মাসুমা দম্পতির তিনদিনের নবজাতক।
বিজ্ঞাপন

এছাড়া অটোরিকশা চালক রাকিবুল হাসান (২৯) নিহত হয়েছেন। তার বাড়ি ময়মনসিংহ সদরে।

শ্যামগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নয়ন দাস বলেন, ‘দুর্ঘটনাকবলিত গাড়ি পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। কী কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটলো তা খতিয়ে দেখা হবে।

এঘটনায় পরিবারগুলোতে শোকের মাতম চলছে। হাসপাতালের পরিবেশ ভারী হয়ে উঠেছে।