মণিরামপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ট্রেকার চালক নিহত:আহত ১০

14

মণিরামপুর প্রতিনিধি:মণিরামপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ট্রেকার-চালকের মৃত্যু হয়েছে। নিহতের নাম আকরাম হোসেন (৫০)। এছাড়া পৃথক ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১০জন।
আজ শনিবার (১৩ মার্চ) সকাল সাড়ে নয়টার দিকে উপজেলার সানতলা খানপুর ও বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কাশিপুর মান্দারতলায় পৃথক দুর্ঘটনা দুটি ঘটে। আহতদের মধ্যে হানুয়ার গ্রামের রেশমা বেগমকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।
নিহত আকরাম হোসেন উপজেলার দেলোয়াবাড়ি গ্রামের সাখাওয়াত শেখের ছেলে।
মণিরামপুর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ওয়ার্ডবয় আশীষকুমার জানান, শনিবার সকালে সানতলা খানপুর এলাকায় সাইকেল ও নসিমনের সংঘর্ষে আহত হয়ে চারজন হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। পরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মণিরামপুর-রাজগঞ্জ সড়কের মান্দারতলায় ট্রেকার ও ট্রলির সংঘর্ষে আহত হয়ে ট্রেকারের চালক ও যাত্রীসহ সাতজন হাসপাতালে আসেন। ওই সময় গুরুতর আহত এক নারীকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। বাকিদের মধ্যে তিনজনকে এই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দুপুর দুইটা ৫০ মিনিটে হাসপাতালে চিকিৎসারত ট্রেকার-চালক আকরাম হোসেনের মৃত্যু হয়।
শ্রমিক নেতা বুলবুল জানান, ঘটনার সময় আকরাম ট্রেকারে যাত্রী নিয়ে রাজগঞ্জ থেকে মণিরামপুর বাজারে আসছিলেন। কাশিপুর মান্দারতলায় সরু একটি কালভার্ট আছে। ওইসময় বিপরীত দিক থেকে একটি ট্রলি আসে। ট্রলিকে সাইড দিতে গিয়ে ট্রেকারটি কালভার্টের রেলিংয়ে ধাক্কা লাগে। এতে চালক আকরামসহ অন্যরা আহত হন।
মণিরামপুর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ফারুক আজম জানান, ভর্তির সময় আকরাম হোসেন খুব বেশি আহত ছিলেন না। ধারণা করা হচ্ছে, আতঙ্কে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে।
মণিরামপুর থানার এসআই নাজমুস সাকিব জানান, আপত্তি না থাকায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।
এদিন সকাল সাড়ে নয়টার দিকে উপজেলার সানতলা খানপুর ও বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কাশিপুর মান্দারতলায় পৃথক দুর্ঘটনা দুটি ঘটে। আহতদের মধ্যে হানুয়ার গ্রামের রেশমা বেগমকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।