মণিরামপুরে মামা-ভাগ্নে সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করছেন-উপজেলা চেয়ারম্যান নাজমা

এবিসি বাংলা ডেস্কএবিসি বাংলা ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  05:51 PM, 22 August 2021

স্টাফ রিপোর্টার,মণিরামপুর:যশোরের মণিরামপুরে প্রতিমন্ত্রী মন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নাজমার খানমের মধ্যকার বিরোধ দিনকে দিন ভয়াবহরুপ নিচ্ছে। প্রতিমন্ত্রীর ভাগ্নে ভাইস চেয়ারম্যান উত্তম চক্রবর্তী বাচ্চু সিন্ডিকেট গড়ে সরকারি চাল বিক্রির সাথে জড়িয়ে পড়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে এই বিরোধের সৃষ্টি হয়। পরে অভিযুক্ত কারাবাসও করেছেন।

স্থানীয়রা বলছেন, ওই ঘটনার পর প্রতিমন্ত্রী স্থানীয় প্রশাসনের ওপর প্রভাব খাটিয়ে চেয়ারম্যান পদ থেকে নাজমা খানমকে অপসারণের প্রস্তাব পাঠায় মন্ত্রণালয়ে। পরে পিবিআই’র তদন্তে নাজমা খানমের অভিযোগ প্রমাণিত হয়। ভাইস চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দেয় সংস্থাটি। তারপরই ভাইস চেয়ারম্যানকে গ্রেফতার করা হয়। যদিও বেশিদিন জেলে তাকে থাকতে হয়নি। ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে তিনি জামিনে বেরিয়ে আসেন। তাকে ভাইস চেয়ারম্যান পদ থেকে বরখাস্তও করা হয়নি দাপুটি ক্ষমতার কারণে। আজ রোববার দুপুরে (২২ আগস্ট) মণিরামপুর বাসস্ট্যান্ডে ১৫ আগস্ট উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও গণভোজ অনুষ্ঠানের বক্তব্যে নাজমা প্রতিমন্ত্রীর ক্ষমতাকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বলেন, আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে নাকি আমার নেতাকর্মীদের ওপর নির্যাতন চালানো শুরু হবে। তিনি বলেন, এই চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করলাম। জনতাকে সাথে নিয়ে অত্যাচারের মোকাবেলা করবো। প্রভাষক ফারুক হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মিকাইল হোসেন, পৌর কমিশনার গৌর কুমার ঘোষ, হাসেম আলী, অনন্ত দেবনাথ, তপন কুমার পবন, চাকলাদার মামুন বাশার, মনিরুজ্জামান মিল্টন, শহিদুল ইসলাম মিলন, ফারুক হোসেন প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় নাজমা খানমের বক্তব্যে দলীয় নেতাকর্মীরা হাত উচু করে সমর্থন দেন। নাজমা খানম তার বক্তব্যে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান উত্তম চক্রবর্তী বাচ্চুকে ও প্রতিমন্ত্রীকে চাল চোর আখ‍্যায়িত করে বলেন, তারা মামা ভাগ্নে মিলে মণিরামপুরে সন্ত্রাসের রাজত‍্য কায়েম করেছে। মামলার নথিপত্র ড্রয়ারে তালা দিয়ে মন্ত্রী ভাগ্নেকে বাঁচাবার যে চেষ্টা করছেন তা কোনভাবেই সফল হবে না

খুলনা বিভাগ

আপনার মতামত লিখুন :