মণিরামপুরে ইউএনও, ডাক্তার-নার্সসহ আক্রান্ত প্রায় ৩০০:মৃত্যু ৩০ জনের

এবিসি বাংলা ডেস্কএবিসি বাংলা ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  09:24 PM, 02 July 2021

জেমস আব্দুর রহিম রানা, স্টাফ রিপোর্টার:কোভিড-১৯ (করোনাভাইরাস)’র দ্বিতীয়ধাপে যশোরের মণিরামপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পাঁচ চিকিৎসক, পাঁচ নার্স সহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় মোট ২৬৯ জন আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে শুধু গত দুইদিনে আক্রান্ত হয়েছে ৫৬ জন।অন্যদিকে দ্বিতীয় ধাপে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৫ জন এবং উপসর্গে অন্তত: ২৫ জন।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা: অনুপ কুমার বসু আমাদের প্রতিবেদক জেমস আব্দুর রহিম রানাকে ব্জানান, মহামারি কোভিড-১৯ (করোনা) এর দ্বিতীয় ধাপে বুধবার মনিরামপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সৈয়দ জাকির হাসানসহ ২১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। ইউএনও জাকির হাসান বর্তমান বাসায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
এ ছাড়াও ইতিমধ্যে আক্রান্ত হয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা:সুমন নাগ, ডা: নাজনিন নাহার, ডা: জিসান আহমেদ, ডা: আমিনুল বারী ও ডা: হোসেন আলী। আক্রান্ত হয়েছেন স্টাফ নার্স ডলি পারভীন, নার্গিস সুলতানা, বিলকিস খাতুন, আসমা খাতুন এবং অর্চনা রানী মন্ডল।
আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা: অনুপ কুৃমার বসু জানান, গত দুইদিনে মঙ্গল ও বুধবার করোনায় আক্রান্ত হন ৫৬ জন। এর মধ্যে বুধবার আক্রান্ত হয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সৈয়দ জাকির হাসান।
অপরদিকে দ্বিতীয়ধাপে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে পৌরশহরের কামালপুরের রাজমিস্ত্রী রবিউল ইসলাম, চালুয়াহাটির বৃদ্ধা জায়েদা বেগম, পারখাজুরার মাষ্টার আব্দুল মজিদ, চন্ডিপুরের রোস্তম আলী সরদার, জামজামি গ্রামের রবিউল ইসলাম। উপসর্গ নিয়ে মারাগেছেন হেলাঞ্চী গ্রামের মুদি দোকানী মোখলেছুর রহমান, হানুয়ার গ্রামের ফাতেমা বেগম, হাকোবার হাশেম আলী, মশ্বিমনগরের ইসাহাক আলী, ফজিলা বেগম, পারখাজুরার আবু বক্কার সিদ্দিক, হাজরাকাঠির ফরিদা বেগম, আব্দুর রাজ্জাকসহ উপজেলার অন্তত: ২৫ জন।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা: শুভ্রা রানী দেবনাথ জানান, করোনায় আক্রান্ত হয়ে বর্তমান ৫ জন এবং উপসর্গ নিয়ে ৭ জন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

খুলনা বিভাগ

আপনার মতামত লিখুন :