ভাইপোর লাঠির আঘাতে আহত চাচার মৃত্যু

এবিসি বাংলা ডেস্কএবিসি বাংলা ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  09:11 PM, 16 August 2021

এবিসি নিউজ:যশোরের সীমান্তবর্তী উপজেলা শার্শায় ভাইপোর বাঁশের লাঠির আঘাতে আহত হাতেম আলী সর্দার (৩০) মারা গেছেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার দুপুরে তার মৃত্যু হয়। তিনি শার্শা উপজেলার লাউতারা গ্রামের মৃত খালেক সর্দারের ছেলে। জমিজমা নিয়ে সংঘর্ষে গত ১৩ আগস্ট হাতেম আলী সর্দার আহত হন।
আহত হাতেম আলীকে প্রথমে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি ঘটলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রেফার করেন চিকিৎসক। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার তার মৃত্যু হয়। সোমবার দুপুরে লাশের ময়না তদন্ত শেষে স্বজনদের কাছে হস্থান্তর করে পুলিশ।
মৃতের ভায়রা কদর আলী ও আতিকুজ্জামান জানান, মৃতের চাচাতো ভাই মশিয়ারের ছেলে বাবলু ও জাহাঙ্গীরের সাথে হাতেম আলী সর্দারের দীর্ঘদিন ধরে জমিজমা ও ঘরের মধ্য থেকে পথ দেয়া-নেয়া নিয়ে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। শুক্রবার দুপুরে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায় বাবলু বাঁশের লাঠি দিয়ে হাতেম আলীর মাথায় আঘাত করে। এ সময় তিনি মারাত্মক আহত হয়ে মাটিতে লুটে পড়েন। স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। কর্তব্যরত চিকিৎসক ওই দিন রাতে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজে রেফার করেন। রোববার দুপুরে তিনি মারা যান।
জরুরি বিভাগের চিকিৎসাক আহম্মেদ তারেক শামস্ জানান, নিহত হাতেম আলী সর্দারের লাশ ময়না তদন্তর শেষে পুলিশ স্বজনদের কাছে দাফনের জন্য বুঝিয়ে দিয়েছেন। তার মাথায় বড় আঘাতের ক্ষত রয়েছে।

খুলনা বিভাগ

আপনার মতামত লিখুন :