বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে ফাঁসির দাবি করলেন যশোর আ’লীগ

20

এবিসি নিউজ:বঙ্গবন্ধুর ত্যাগের মাধ্যমেই দেশ স্বাধীন হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে স্বাধীন বাংলাদেশের কথা চিন্তা করা যেত না। তাই বঙ্গবন্ধুর ঘাতকদের কোন রক্ষা নেই। খুনিদের দ্রুত দেশে এনে ফাঁসি দেয়ার দাবি করেন তিনি।

বুধবার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধ শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১তম জন্মবার্ষিকীতে জেলা যুবমহিলা লীগের সমাবেশে ও কেক কাটা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন এসব কথা বলেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে যশোর-৩ আসনের সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ বলেন, বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য উত্তরসুরী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিচক্ষণতার সাথে দেশ পরিচালনা করছেন। অর্থনীতির সব সূচকে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশে বড় বড় মেঘা প্রকল্প বাস্তবায়ন হচ্ছে। যার স্বীকৃতি স্বরুপ জাতিসংঘ বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে। এই সফলতার সব অবদান শেখ হাসিনার। রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় শেখ হাসিনা না থাকলে এত উন্নয়ন করা সম্ভব হতো না।

এছাড়াও বিশেষ অতিথি ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও পৌরসভার নৌকার প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা হায়দার গণি খান পলাশ।

বক্তব্য রাখেন সদর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নূরজাহান ইসলাম নীরা, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তফা ফরিদ আহমেদ চৌধুরী, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি আবুল হোসেন খান, জেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সৈয়দ মুনির হোসেন টগর, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বিপুল, আওয়ামী লীগনেতা লুৎফুল কবীর বিজু, জেলা যুবলীগের সদস্য এস এম রবি সিদ্দিকী, জেলা বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সহ-সভাপতি মীর আজাদ, শহর মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক তছিকুর রহমান রাসেল, এম এম কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ইমরান হোসেন ও যবিপ্রবি ছাত্রলীগের হল সভাপতি বিপ্লব দে শান্ত।

আরো পড়ুন>>>জন্মদিনে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে এমপি নাবিলের নেতৃত্বে নেতাকর্মীদের শ্রদ্ধা

এরপর কাজী নাবিল আহমেদ জেলা যুবলীগ, সদর ও শহর যুবলীগের আয়োজনে কেক কাটেন। এতে উপস্থিত ছিলেন, জেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সৈয়দ মুনির হোসেন টগর, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শেখ রফিকুল ইসলাম রফিক, সাংগঠনিক সম্পাদক মঈন উদ্দিন মিঠু, সদস্য শেখ জাহিদুর রহমান লাবু, শহর যুবলীগের আহবায়ক মাহামুদুল হাসান মিলু, যুগ্ম-আহায়ক সোলাইমান খান রাফেল, সদর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক মাজহারুল ইসলাম মাজহার, যুগ্ম-আহবায়ক শহীদুজ্জামান শহীদ, সদস্য ফারুক হোসেন, আব্দুর রাজ্জাক প্রমুখ।

সন্ধ্যায় সংসদ সদস্যের বাসভবনে জেলা মহিলালীগ ও ছাত্রলীগ আয়োজনে কেক কাটেন তিনি। এতে উপস্থিত ছিলেন জেলা মহিলালীগের সভাপতি লাইজুজ্জামান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শাহানা আক্তার, এম এম কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ইমরান হোসেন, যবিপ্রবি ছাত্রলীগের হল সভাপতি বিপ্লব দে শান্ত, শেখ হাসিনা হল সভাপতি শিলা আক্তার প্রমুখ।