প্রবীণ আইনজীবী কাজী আব্দুস শহীদ লাল আর নেই

76

যশোরের বর্ষীয়ান রাজনীতিক, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, প্রবীণ আইনজীবী কাজী আব্দুস শহীদ লাল (৮২) আর নেই(ইন্না….রাজিউন)।
আজ (২০ মে) সকাল ছয়টার দিকে তিনি যশোরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।
তিনি দীর্ঘদিন ধরে হার্ট ও কিডনিজনিত রোগে ভুগছিলেন।
তিনি স্ত্রী, এক ছেলে, তিন মেয়ে, ভাইসহ বহু গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।
তাঁর মৃত্যু খবরে যশোরে বিভিন্ন মহলে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
মরহুমের ভাই কাজী আব্দুস সবুর হেলাল জানান, ভোর চারটার দিকে নিজ বাসায় গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে দ্রুত তাকে যশোরের বেসরকারি কুইন্স হসপিটালে নিয়ে যাওয়া হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি সেখানে মারা যান।
ছাত্রজীবনে তিনি অবিভক্ত ছাত্র ইউনিয়ন, ছাত্র ইউনিয়নের (মতিয়া) নেতা ছিলেন। পরে তিনি বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি ন্যাপ (মোজাফ্ফর), সিপিবি এবং শেষে গণফোরামের রাজনীতি সক্রিয় ছিলেন। তবে বছর দশেক ধরে তিনি রাজনীতি থেকে এক প্রকার সরে দাঁড়ান। এ সময়ে তিনি বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনে ওতোপ্রতোভাবে জড়িয়ে ছিলেন।

আব্দুস শহীদ লাল যশোর আইনজীবী সমিতির তিনবার সভাপতি ও তিনবার সাধারণ সম্পাদদের দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি সাংস্কৃতিক সংগঠন উদীচীর সঙ্গে দীর্ঘকাল ধরে সম্পৃক্ত ছিলেন।
সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট যশোরের সাবেক সভাপতি হারুন অর রশিদ জানান, ৬২’র শিক্ষা আন্দোলনে তাকে পাকিস্তান সরকার গ্রেফতার করে সাজা দেয়। ’৬৯-এর গণঅভ্যুত্থান, ৭১ এর স্বাধীনতা সংগ্রামে তিনি সংগঠকের দায়িত্ব পালন করেন। স্বাধীনতার পর সামাজিক অসঙ্গতির বিরুদ্ধে, কৃষক শ্রমিকের দাবি আদায়ের সপক্ষে, নারী নির্যাতন প্রতিরোধে, সাম্প্রদায়িক শক্তির বিরুদ্ধে এবং সাংস্কৃতিক বিকাশের সপক্ষে সমস্ত আন্দোলন সংগ্রামে তিনি জীবনের শেষদিন পর্যন্ত ভূমিকা পালন করেছেন।
মরহুমের ভাই কাজী হেলাল জানিয়েছেন, বাদ আছর কেন্দ্রীয় ঈদগাহে মরহুমের জানাজা শেষে যশোর কারবালা গোরস্থানে তাকে দাফন করা হবে। এর আগে তার মরদেহ আনা হবে উদীচী কার্যালয় প্রাঙ্গণে। সেখানে বিভিন্ন রাজনৈতিক-সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন মরহুমের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করতে পারবে।

বিভিন্ন মহলের শোক
কাজী আবদুস শহীদ লালের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচাৰ্য্য । এক শোকবার্তায় তিনি মরহুমের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।
এছাড়াও শোক প্রকাশ করেছেন প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন ও সম্পাদক আহসান কবীর ও নিউজপোর্টাল এবিসি বাংলা ৭১’র সম্পাদক প্রকাশক সুনীল ঘোষ, ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মুক্তি নন্দী ও নির্বাহী সম্পাদক এলিজা রহমান।