প্রতিমন্ত্রীর অনুসারীদের বিরুদ্ধে ভাংচুরের অভিযোগ

খালেক নামে কোন আ’লীগ নেতাকে চিনি না-প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য

এবিসি নিউজ>এবিসি নিউজ>
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  06:28 PM, 10 May 2022
ফাইল ছবি

গ্রুপ রাজনীতির কথা স্বীকার করে নিলেন স্থানীয় সরকার ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য। তার অনুসারীদের বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগ অফিস, দোকান ও বাড়িঘর ভাংচুরের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠানের পর জানতে চাইলে তিনি বলেন, অপপ্রচার করা হচ্ছে। গ্রুপ রাজনীতির কারণে তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করা হচ্ছে।

ঙ্গলবার (১০ মে) দুপুরে প্রেসক্লাব যশোরে এক সংবাদ সম্মেলনে আব্দুল খালেক নামে এক আওয়ামী লীগ নেতা ভাংচুরের অভিযোগ করেন। আব্দুল খালেক যশোরের মণিরামপুর উপজেলার চালুয়াহাটি ইউনিয়নের ৫নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য যশোর-৫ মণিরামপুর আসনের সরকার দলীয় সংসদ সদস্য।

লিখিত বক্তব্যে আব্দুল খালেক উল্লেখ করেন, তিনি নিজ বাড়ির পাশে ১৪ দশমিক ২৬ শতাংশ জমি ক্রয় করে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কার্যালয় নির্মাণ করেন। এছাড়া ওই জমিতে একটি দোকান ঘর ও দুটি চাল ঘর নির্মাণ করে ব্যবহার করছিলেন। গত ৭ মে প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য রসুলপুর প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এক পথসভায় অংশ নেন। এসময় তার অনুসারী ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম ও জামায়াত নেতা মাস্টার ইব্রাহিম হোসেনও মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন। প্রতিমন্ত্রী চলে যাওয়ার পর তাদের নেতৃত্বে ১৫/২০জন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। একইসাথে তারা খুন জখমের হুমকি দিয়ে চলে যায়। বিষয়টি প্রতিমন্ত্রীকে জানালে তিনি এ বিষয়ে কোন পদক্ষেপ নেননি। ওই রাতে মামলা দিলেও পুলিশ আইনগত কোন ব্যবস্থা নেয়নি। এ অবস্থায় ন্যায় বিচার পেতে তিনি সংবাদ সম্মেলন করেছেন।
তবে অভিযোগের বিষয়টি মিথ্যা দাবি করে স্থানীয় সরকার ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য বলেন, চালুয়াহাটি ইউনিয়নে আব্দুল খালেক নামে কোন আওয়ামী লীগ নেতার সাথে আমার পরিচয় নেই। এ নামে কাউকে চিনি না। ঈদের পর থেকে আমি কোন সভা করিনি। গাড়িতে করে নির্বাচনী এলাকায় ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করেছি। গ্রুপিং রাজনীতিতে উদ্দেশ্যমূলক ভাবে আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে- দাবি করেন প্রতিমন্ত্রী।

এদিকে এতদিন গ্রুপ রাজনীতির কথা এভাবে স্বীকার করেননি দলটির কোনো নেতা। এবারই প্রথম প্রতিমন্ত্রী স্বীকার করলেন গ্রুপ রাজনীতির কারণে তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার করা হচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :