পাইকগাছায় চিংড়ি চাষীদের সাথে প্রশাসনের মতবিনিময়

12

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি:পাইকগাছায় চিংড়ি চাষের সম্ভাবনা, সমস্যা নিরসন ও চিংড়ি জোন নির্ধারণ বিষয়ক চিংড়ি চাষীদের এক মতবিনিময় সভা সোমবার বিকালে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা প্রশাসন এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন-সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আক্তারুজ্জামান বাবু। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার ইকবাল মন্টু, মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর, জেলা পরিষদ সদস্য শেখ কামরুল হাসান টিপু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শিয়াবুদ্দিন ফিরোজ বুলু, ইউপি চেয়ারম্যান রিপন কুমার মন্ডল, উপজেলা চিংড়ী চাষী সমিতির সভাপতি মোস্তফা কামাল জাহাঙ্গীর, সাধারণ সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া রিপন ও সহ-সভাপতি দাউদ শরীফ। সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা পবিত্র কুমার দাসের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন পাউবো’র উপসহকারী প্রকৌশলী ফরিদ উদ্দিন, চিংড়ি চাষী আলহাজ্ব ইসতিয়ার রহমান শুভ, আবুল বাসার বাবুল সরদার, নির্মল মজুমদার, শেখ জালাল উদ্দিন, শাহিন মিস্ত্রি, সাজ্জাত আলী সরদার, মোর্তজা জামান আলমগীর রুলু,সুনীল মন্ডল, এমএম আজিজুল হাকিম, বিজন বিহারি সরকার, বিমল মন্ডল, আব্দুর রাজ্জাক রাজু, প্রদীপ মহলদার, সায়েদ আলী কালাই, শাহিন ইকবাল, বিশ্বজিৎ সরকার, সাংবাদিক মোঃ আব্দুল আজিজ, জিএম মিজানুর রহমান, এসএম আলাউদ্দিন সোহাগ, এসএম বাবুল আক্তার, প্রভাষক মসিউর রহমান, ছাত্র লীগ নেতা পার্থপ্রতিম চক্রবর্তী, নাজমা কামাল, মুক্ত অধিকারী, সালাউদ্দিন কাদের ও রায়হান পারভেজ রনি। সভায় পোনা ও চিংড়ির সরকারি মূল্য নির্ধারণ, চুন, সার, খাবার ও অন্যান্য উপকরণের সুলভ মূল্যে প্রাপ্তি, স্লুইচ গেট সংস্কার, ধান চাষ বাধ্যতামূলক, বেড়ি বাঁধ টেকসই করা, এলাকা ভিত্তিক চিংড়ি জোন নির্ধারণ ও চিংড়ি খাতে সরকারি ভুর্তকীর অর্থ সরাসরি চিংড়ি চাষীদের অনুকূলে প্রদানসহ গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। সভায় পৌর অভ্যন্তরে লবন পানি উত্তোলন বন্ধ, কৃষি ফসলের ক্ষতি না করাসহ সরকারি রাস্তা ক্ষতি না করে সরকারি নির্দেশনা ও নীতিমালা অনুসরণ করে চিংড়ি চাষ করার জন্য চাষীদের প্রতি আহবান করা হয়।