নওয়াপাড়ায় নির্বাচনের আচরণ বিধি মানছেন না অধিকাংশ প্রার্থী

এবিসি বাংলা ডেস্কএবিসি বাংলা ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  03:25 PM, 14 September 2021
নির্বাচনী আচারণ বিধি ভেঙ্গে সাঁটানো হয়েছে পোস্টার

যশোরের অভয়নগরের নওয়াপাড়া পৌরসভা নির্বাচন আগামী ২০ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনকে ঘিরে প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণা তুঙ্গে উঠেছে। পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডেই বইছে নির্বাচনী আমেজ।

এদিকে ব্যানার-পোস্টারে ছেয়ে গেছে গোটা পৌর এলাকা। প্রচার মাইকে দিন-রাত চলছে প্রচারণা। প্রার্থীদের নিয়ে চায়ের দোকানে চলছে প্রার্থীদের নিয়ে চুলচিরা বিশ্লেষণ। তবে এরই মধ্যে অধিকাংশ কাউন্সিলর প্রার্থীর বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লংঘনের অভিযোগ উঠেছে। সরকারি নির্দেশনা লংঘন করে অধিকাংশ প্রার্থী তাদের নির্বাচনী পোস্টার সেঁটে দিয়েছেন সরকারি-বেসরকারি ও আবাসিক দালানে, বিভিন্ন দেওয়ালে, লাইটপোস্টে, সরকারি দপ্তরের ফটকে, গাছসহ যেখানে ইচ্ছা সেখানে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের একজন কাউন্সিলর প্রার্থী অভিযোগ করে বলেন, নির্বাচনী আচরণবিধি লংঘন করা হচ্ছে। কিছু কিছু প্রার্থী তাদের কর্মী-সমর্থকের মাধ্যমে পোস্টার লাগেনোর বিধি-নিষেধ লংঘন করেছেন। অথচ সেইসব প্রার্থীর বিরুদ্ধে অভয়নগর উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। আচরণবিধি লংঘনের দায়ে ওইসব প্রার্থীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান তিনি।
অভিযোগের ভিত্তিতে মঙ্গলবার সকালে সরেজমিনে পৌর এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, সরকারি ও বেসরকারি আবাসিক এলাকার দালানে, উপজেলা পরিষদের মুল ফটকের পিলারে, দুই লোহার গেটের কপাটে, বিভিন্ন প্রজাতির গাছে, বৈদ্যুতের খুঁটিতে, চায়ের দোকানের ভেতরেসহ বিভিন্ন স্থাপনায় আঠা দিয়ে পোস্টার সেঁটে দেওয়া হয়েছে। নির্বচনে প্রার্থীর আচরণ বিধিমালা ২০০৮’র বিধি ৭ অনুযায়ী পোস্টার, লিফলেট বা হ্যান্ডবিল ব্যবহার সংক্রান্ত বিধি-নিষেধে বলা হয়েছে, ‘কোন প্রার্থী কিংবা তার পক্ষে অন্য কোন ব্যক্তি নির্বাচনী এলাকায় অবস্থিত দালান, দেওয়াল, গাছ, বেড়া, বিদ্যুৎ ও টেলিফোনের খুঁটি বা অন্য কোন দন্ডায়মান বস্তুতে, সমগ্র দেশে অবস্থিত সরকারি বা স্থানীয় কর্তৃপক্ষের স্থাপনাসমূহে পোস্টার, লিফলেট বা হ্যান্ডবিল লাগানো যাবে না।’ অথচ এই বিধি-নিষেধ লংঘন করছেন ৯টি ওয়ার্ডের অধিকাংশ কাউন্সিলর প্রার্থী।

৬নং ওয়ার্ডের গুয়াখোলা গ্রামের জনৈক ফরিদ ও রমিজ উদ্দিন জানান, সোমবার রাতে তাঁদের দালানে এক কাউন্সিলর প্রার্থীর কর্মীরা পোস্টার মারছিল। এসময় বাঁধা দিলেও তারা শোনেনি। জোরপূর্বক পোস্টার সেঁটে দিয়ে চলে যায়। রাতে প্রার্থীদের কর্মী-সমর্থকরা এধরণের কাজ করছেন বলে ভবন মালিকদের অভিযোগ।

ওইসব প্রার্থীদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা নাম প্রকাশ না করার অনুরোধ করে বলেন, আমাদের কর্মী-সমর্থকদের পোস্টার লাগানোর সঠিক নির্দেশনা দেওয়া রয়েছে। অতি উৎসাহীরা ভুল করে পোস্টার লাগিয়ে থাকতে পারে। দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন তারা।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাচন অফিসার এসএম হাবিবুর রহমান বলেন, নির্বাচনী আচরণ বিধিমালা লংঘন করলে সেইসব প্রার্থীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি রিটার্নিং অফিসারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলেন। নওয়াপাড়া পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আমিনুর রহমান জানান, নির্বাচনী পোস্টার, হ্যান্ডবিল ও লিফলেট লাগানো সংক্রন্ত বিধি-নিষেধ লংঘনকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তানজিলা আখতারকে বলা হয়েছে।

বাংলাদেশ

আপনার মতামত লিখুন :