দুই এমপি’র মাথার দাম কোটি টাকা ঘোষণা:পিতা-পুত্র গ্রেফতার

এবিসি বাংলা ডেস্কএবিসি বাংলা ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  10:01 PM, 11 August 2021

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:সাতক্ষীরায় ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে দুই এমপি’র মাথা কেটে দিতে পারলে কোটি টাকা পুরষ্কার দেয়ার ঘোষণা করে এক যুবক গেফতার হয়েছে। সাতক্ষীরা গোয়েন্দা পুলিশ ইউসুফ হোসেন বাবু (২১) নামে ওই যুবককে গ্রেফতার করেছে। তার বাবার নাম মনিরুল ইসলাম। তাদের বাড়ি দেবহাটা উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা গ্রামে।
বুধবার দুপুরে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানান-সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান। তিনি জানান, ইউসুফ বাবুর কাছ থেকে ২০টি সিম কার্ড, ৮টি মোবাইল, ৩টি মেমোরি কার্ড, একটি স্পাই ক্যামেরাযুক্ত ঘড়ি এবং বেশকিছু জিহাদী বইপত্র উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের আরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। একইসাথে তার বাবা মনিরুল ইসলামকেও আমরা জিজ্ঞাসাবাদ করছি।
পুলিশ সুপার জানান, গত ৮ আগস্ট বিকালে সাতক্ষীরার দুই সংসদ সদস্য সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. আফম রুহুল হক এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবির মাথা কেটে দিতে পারলে ১ কোটি টাকা দেয়া হবে বলে ফেসবুকে ‘আজরায়ি জান নেই’ ও ‘কালিমা মা’ আইডিতে ঘোষণা দেয়। এই হুমকির পর পুলিশ বিষয়টি জানতে পেরে অনুসন্ধানে নামে। হুমকি দেয়ার তিনদিনের মাথায় ইউসুফ বাবুকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করতেও সমর্থ হয়েছে পুলিশ।
পুলিশ সুপার জানান, ইউসুফ বাবুর মা আজমিরী বেগম জামায়াতের মহিলা রুকন। তিনি বিভিন্ন স্থানে উঠান বৈঠক করে জামায়াতের নারী কর্মীদের সংগঠিত করে আসছেন। ইউসুফ বাবুর মেমোরি কার্ডে ২০১৩ সালে সাতক্ষীরায় জামায়াতের বিভিন্ন সহিংসতার ছবি ও ভিডিও ফুটেজ পাওয়া গেছে। ইউসুফ বাবুর বাবাও জামায়াতের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত রয়েছেন। পুলিশ সুপার আরও জানান, ইউসুফ বাবুর সাথে আর কেউ জড়িত আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
উল্লেখ্য, ডা. আফম রুহুল হক বর্তমানে সাতক্ষীরা-৩ আসনের সংসদ সদস্য এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি সাতক্ষীরা-২ আসনের সংসদ সদস্য। ফেসবুকে এই হুমকি পাওয়ার পর তারা পুলিশকে বিষয়টি জানিয়েছিলেন। এ ঘটনায় সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়।
পুলিশ সুপার জানান, সহকারী পুলিশ সুপার (সদর) ইকবাল হোসেনের নেতৃত্বে গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল ইউসুফ বাবু ও তার বাবাকে তাদের বাড়ি থেকে আটক করে।

শীর্ষ খবর

আপনার মতামত লিখুন :