দক্ষিণাঞ্চলে বর্ণাঢ্য আয়োজনে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উদযাপন

14

এবিসি ডেস্ক:সারাদেশের মতো যশোরসহ দক্ষিণাঞ্চলে বর্ণাঢ্য আয়োজনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপিত হয়েছে। বুধবার সকাল ৬টায় তোপধ্বনী এবং সরকারী-বেসরকারী সকল প্রতিষ্ঠানে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্যদিয়ে দিনের কর্মসুচি শুরু হয়। প্রশাসন, আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী সংগঠন এবং জেলার বিভিন্ন সরকারী বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ করা হয়। এসময় বঙ্গবন্ধুসহ সকল শহীদদের রুহের মাগফেরত কামনা করে বিশেষ দোয়া, শতকন্ঠে জাতীয় সংগীত পরিবেশন ও আনন্দ র‌্যালি বের হয়। এছাড়াও শিশুদের মধ্যে খাবার বিতরণ ও সাংস্কৃতি অনুষ্ঠানের আয়োজ করা হয়। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর:

চৌগাছা থেকে নিজস্ব প্রতিবেদক জানান, দিবসটিতে কোরআন তেলওয়াত, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল, মুক্তিযুদ্ধ ভাস্কর্যের বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুস্পমাল্য অর্পণ, আলোচনা সভা ও বৈশাখী মঞ্চে বাংলার মহানায়ক নাটক মঞ্চস্থ হয়। আরও খবর>>যশোরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে এমপি’র নেতৃত্বে শ্রদ্ধা নিবেদন

সকাল সাড়ে ৮ টায় মুক্তিযুদ্ধ ভাস্কর্যে আনুষ্ঠানিকভাবে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য পুস্পমাল্য অর্পণ করে উপজেলা প্রশাসন। পর্যায়ক্রমে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, চৌগাছা থানা, মৃধাপাড়া মহিলা কলেজ, সরকারি শাহাদৎ পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়, হাজী মর্ত্তজ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, এবিসিডি কলেজ, তরিকুল ইসলাম পৌর কলেজ, প্রেসক্লাব চৌগাছা পুস্পস্তবক অর্পণ করে।
এ সময় উপজেলা চেয়ারম্যান ড. মোস্তানিছুর রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান দেবাশিষ মিশ্র জয়, নির্বাহী অফিসার এনামুল হক, থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম, অধ্যক্ষ রফিকুল ইসলাম কবির, অধ্যক্ষ রেজাউল ইসলাম, অধ্যক্ষ মঞ্জুরুল আলম লিটু প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়া বেলা ১১ টায় উপজেলা আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য পুস্প স্তবক অর্পণ করা হয়। এ সময় উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা এস এম হাবিবুর রহমান, সিনিয়র সহ-সভাপতি শহিদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মেহেদি মাসুদ চৌধুরীসহ দলীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
সকাল ৯ টায় উপজেলা পরিষদ চত্বরে শিশু সমাবেশের কার্যক্রম শুরু হয়। এরপর বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের উপর শুরু হয় আলোচনা সভা। বিকেলে উপজেলা পরিষদ চত্বরে বৈশাখী মঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সন্ধার পর মঞ্চস্থ হয় ঐতিহাসিক নাটক ‘বাংলার মহানায়ক’।

মণিরামপুর প্রতিবেদক জানান, দিবসটিতে এতিম শিশুদের নিয়ে কেক কেটে ব্যতিক্রম কর্মসূচি পালন করেন মণিরামপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধার সম্পাদক প্রভাষক ফারুক হোসেন। তিনি বিভিন্ন এতিম খানায় কেক কাটা, কোরআন খতম, খাবার বিতরণ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেন। পৌর এলাকার দারুল উলুম এলাহী বক্স হাফিজিয়া মাদ্রাসা ও এতিম খানায়, ক্যাডেট স্কিম মাদ্রাসাসহ কয়েকটি এতিম খানায় এতিম শিশুদের নিয়ে কেক কাটেন তিনি। এসময় এতিম শিশুদের মাঝে খাবার ও মিষ্টি বিতরণ করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নাজমা খানম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গাউসুল মোস্তাক, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক হাশেম আলী, রহিতা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাফিজউদ্দীন, কাশিমনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান তৌহিদুর রহমান, ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মনি, গাজী মাযাহারুল আনোয়ার, আব্দুল হক, আওয়ামী লীগ নেতা আবুল বাশার, বাবুল আক্তার, উপজেলা মহিলালীগের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক আসমাতুন্নাহার, চালুয়াহাটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল হাই, আমজেদ হোসেন, শ্রমিকলীগ নেতা জাহাঙ্গীর হোসেন, যুবলীগ নেতা শিপন সরদার, আব্দুল মোমিন, ছাত্রলীগ নেতা সাইদুর রহমান জনি, মাহবুর রহমান, সাজ্জাত হোসেন প্রমূখ। পরে দোয়া অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মুফতি হাফিজুর রহমান।
মণিরামপুর পৌরসভা: মণিরামপুর পৌরসভা পৃথক কর্মসূচি পালন করেছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পৌর মেয়র কাজী মাহমুদুল হাসান, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাড. বশির আহম্মেদ খান, প্যানেল মেয়র-১ কামরুজ্জামান কামরুল, প্যানেল মেয়র-২ গীতারানী কুন্ডু, প্যানেল মেয়র-৩ আব্দুল কুদ্দুস, সচিব কামাল হোসেন, প্রকৌশলী শেখ স্যাইয়াদুল হক, পৗর যুবলীগ সভাপতি এস এম লুৎফর রহমানসহ পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ। এছাড়া উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সরকারি-বেসরকারি, স্বায়িত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানসহ সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন বিস্তারিত কর্মসূচি পালন করে।

সজিব ওয়াজেদ জয় পরিষদ ঃ দিবসটিতে সজিব ওয়াজেদ জয় পরিষদ মণিরামপুর উপজেলা শাখার আয়োজনে কেক কাটা হয়। বুধবার সংগঠনের অস্থায়ী কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক বাপ্পী কুন্ডুু সভাপতিত্ব করেন। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি আমজাদ হোসেন লাভলু। প্রধান বক্তা ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান নাজমা খানম। বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক তারেক মির্জার পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা শ্রমিকলীগ নেতা বাবুল করিম বাবুল, আসাদুজ্জামান আসাদ, গৌর কুমার ঘোষ, সাবেক কাউন্সিলর গোপাল মল্লিক, শ্রীবাস কুন্ডু, কাউন্সিলর মোহামদ আজিম প্রমুখ।
নড়াইল প্রতিনিধি প্রতিনিধি জানান, স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবসে পুলিশের আয়োজনে একশ’ হতদরিদ্র ও অসহায় শিশুর মাঝে খাবার বিতরণ, কেক কাটা ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। দুপুর ১২টায় পুলিশ লাইন হল রুমে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায় পিপিএম। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) তানজিলা সিদ্দিকা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) রিয়াজুল ইসলাম, সিআইডির এএসপি প্রত্যুষ কুমার মজুমদারসহ পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ। বক্তব্য শেষে পুলিশ সুপারের উদ্যোগে একশ’ হতদরিদ্র ও অসহায় শিশুর মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়।
সাতক্ষীরা থেকে আব্দুল জলিল জানান, কেক কাটা ও আলোচনা সভার মধ্যদিয়ে সদর উপজেলা আওয়ামীলীগ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস পালন করেছে। দিবসটিতে সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুর রশিদের সভাপতিত্বে শহরের পুরাতন আইনজীবী ভবনে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্জ নজরুল ইসলাম। বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি অধ্যক্ষ আবু আম্মেদ, দপ্তর সম্পাক শেখ হারুনার রশিদ, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক লায়লা পারভীন সেজুতি, সদস্য এসএম শওকাত হোসেন, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শাজহান আলী, সহসভাপতি আসাদুজ্জামান অছলে, সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজামান মাসুম, প্রভাষক রানা তথ্য গবেষণা সম্পাদক আব্দুল জলিল প্রমুখ ।
বাগেরহাট প্রতিনিধি প্রতিনিধি জানান, বাগেরহাটে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ, আনন্দ র‌্যালি, শতকন্ঠে জাতীয় সংগীত পরিবেশন ও দোয়া মাহফিলসহ নানা কর্মসূচির মধ্যদিয়ে উদযাপিত হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস। বুধবার সকাল ৬টায় তোপধ্বনী এবং সরকারী-বেসরকারী সকল প্রতিষ্ঠানে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্যদিয়ে দিনের কর্মসুচি শুরু হয়। পরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ, জেলা আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী সংগঠন এবং জেলার বিভিন্ন সরকারী বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ করা হয়। বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক আ.ন.ম ফয়জুল হক, পুলিশ সুপার আরিফুল হক, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ভূইয়া হেমায়েত উদ্দীনসহ বিভিন্ন পর্যায়ের সরকারী ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। দিনব্যাপী অন্যান্য কর্মসুচির মধ্যে ছিল শিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, কবিতা আবৃতি, আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
এদিকে বিকালে জেলা তাঁতী লীগের কার্যালয়ে কেক কাটা হয়। এখানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ আলহাজ¦ তালুকদার আব্দুল বাকি। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা তাঁতী লীগের সদস্য সচিব ইফতেখারুল ইসলাম রানা, জেলা তাঁতী লীগের সদস্য আবুল কালাম আজাদ, মোঃ আবু জাফর, পৌর তাঁতী লীগের সভাপতি খান জাহাঙ্গীর হোসেন মিঠু, ৬ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি শেখ আবুল হোসেন, পৌর তাঁতীঁ লীগ নেতা কামরুল হাসান, আরাফাত মীর, মানিক হাওলাদার, মোঃ রোমান শেখ, সনাতন দাস, শিপন শেখ, মেহেদী হাসান, জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শওকত হোসেন ও সাংগঠনিক সম্পাদক সোহাগ হাওলাদার প্রমুখ।
অপরদিকে দিবসটিতে জেলা আওয়ামী লীগ ও সকল সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে সকাল ৭টায় দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্ষ্পুমাল্য অর্পণ করা হয়।
বিকালে দলীয় কার্যালয়ে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ কামরুজ্জামান টুকুর সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি এ্যাড ফরিদ উদ্দিন, ডাঃ মোঃ মোশাররফ হোসেন, এ্যাড আলী আকবর, সাধারণ সম্পাদক এ্যাড হেমায়েত উদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সরদার ফখরুল আলম সাহেব, মনোয়ার হোসেন টগর, আওয়ামী লীগ নেতা ফজলে সাঈদ ডাবলু, নকিব নজিবুল হক নজু, এ্যাড মোহাম্মদ আলী, আহাদ উদ্দিন হায়দার, সীতা রানী দেবনাথ, শেখ আক্তারুজ্জামান বাচ্চু, শেখ বশিরুল ইসলাম, ইবনে মিজান হিরু, জেলা যুব লীগের আহবায়ক সরদার নাছির উদ্দিন, রিজিয়া পারভিন, রেজাউর রহমান মন্টু, শেখ আব্দুস সবুর, সেলিনা বানু সেলি, মোঃ মনির হোসেন, নাহিয়ান সুলতান ওশানসহ আওয়ামী লীগ ও সকল সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
পরে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ কামরুজ্জামান টুকু দলীয় নেতা কর্মীদের সাথে নিয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১তম জন্মবার্ষিকীর কেক কাটেন। বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের পরিচালনায় দলীয় কার্যালয়ে এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।


মোংলা প্রতিনিধি জানান, মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ ‘বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন শিশুর হৃদয় হোক রঙিন’ সম্মলিত ব্যানার মোংলা বন্দরের বিভিন্ন স্থাপনায় টাঙিয়ে দেয়াসহ বিস্তারিত কর্মসূচি পালন করে। মোংলা বন্দর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শিশুদের রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতা, আলোচনা অনুষ্ঠান (ছোটদের বঙ্গবন্ধু) এবং ডকুমেন্টারী প্রদর্শন করা হয়। অপরদিকে মবক’র কর্মচারীদের মাঝে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী বই বিতরণ করা হয় এবং বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক ভিডিও প্রদর্শন করা হয়। এ অনুষ্ঠানে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের পরিচালক (প্রশাসন) মোঃ গিয়াস উদ্দিন (উপ-সচিব)’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মাদ মুসা। বিশেষ অতিথি ছিলেন ক্যাপ্টেন এম আব্দুল ওয়াদুদ তরফদার ও মোঃ ইমতিয়াজ হোসেন (প্রকৌশল ও উন্নয়ন)। এছাড়া বন্দর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু কর্ণার উদ্বোধন করেন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মোহাম্মাদ মুসা। এছাড়াও বন্দর হাসপাতালে ভর্তি রুগিদের উন্নতমানের প্যাকেট খাবার বিতরণ করা হয়। কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি জানান, বুধবার সকাল সোয়া ৯টায় একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খন্দকার রবিউল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাঈদ মেহেদী। সোহরাওয়ার্দী পার্ক কমিটির সাধারণ সম্পাদক এ্যাডঃ জাফরুল্লাহ ইব্রাহিমের পরিচালনায় আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মাস্টার নরিম আলী মুন্সি, সাহিত্যিক ও প্রবান্ধিক অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক গাজী আজিজুর রহমান, থানার অফিসার ইনচার্জ দেলোয়ার হুসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাকিম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডঃ হাবিব ফেরদাউস শিমুল, প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি শেখ আনোয়ার হোসেন প্রমুখ। উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ১৭ মার্চ দিনব্যাপি অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে ছিল সূর্যোদয়ের সাথে সাথে তোপধ্বনী, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ, র‌্যালি ও শিশু সমাবেশ, শিশুদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা। বিকালে উপজেলা পরিষদ মাঠে বঙ্গবন্ধুর উপর স্বল্পদৈঘ্য চলচিত্র ও তথ্যচিত্র প্রদর্শন এবং সন্ধ্যায় উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
অপরদিকে দিবসটিতে র‌্যালি, আলোচনা সভা ও কেক কেটে বিস্তারিত কর্মসূচি পালন করে উপজেলা আওয়ামীলীগ। সকাল ১০টায় দলীয় নেতাকর্মীদের অংশগ্রহণে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। দলীয় কার্যালয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মাস্টার নরিম আলী মুন্সির সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা আ‘লীগের সাধারণ সম্পাদক এনামুল হোসেন ছোট। জাতীয় শ্রমিকলীগ উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক গাজী আব্দুস সবুরের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন থানার অফিসার ইনচার্জ দেলোয়ার হুসেন, উপজেলা আ‘লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়র মেহেদী হাসান সুমন, উপজেলা আ‘লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডঃ হাবিব ফেরদাউস শিমুল, উপজেলা মহিলা আ‘লীগের সভানেত্রী জেবুন্নাহার জেবু, উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক, ইউনিয়ন আ‘লীগের সভাপতি সজল মুখার্জি, আশরাফুল হোসেন খোকন, মোজাম্মেল হক গাইন, মোস্তফা কবিরুজ্জামান মন্টু, কাজী কাওফিল অরা সজল, গোবিন্দ মন্ডল, আহম্মদ আলী সরদার, মোকলেছুর রহমান মুকুল, নুরুল হক সরদার, গোবিন্দ মন্ডল, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হাসান নাঈম, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কাজী নূর আহমেদ রনি, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি নুরুজ্জামান জামু, উপজেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি ফতেমা ইসলাম রিক্তা, উপজেলা জাতীয় শ্রমিকলীগের সভাপতি শাহা জালাল প্রমুখ। ঝিনাইদহ প্রতিনিধি জানান, দিবসটিতে শহরের প্রেরণা একাত্তর চত্বরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালের সামনে র‌্যালি নিয়ে জড়ো হয় সরকারী বেসরকারী বিভিন্ন দপ্তর ও সংগঠন। সকাল ৮ টায় রাষ্ট্রের পক্ষে প্রথমে জেলা প্রশাসক মোঃ মজিবর রহমান পরে পুলিশ সুপার মুনতাসিরুল ইসলাম, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কনক কান্তি দাস, জেলা পরিষদের সচিব রেজাই রাফিন সরকার, জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক নিলুফার রহমান, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. আব্দুর রশীদ, সদর উপজেলার সদ্য যোগদানকৃত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম শাহীন, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রাশিদুর রহমান রাসেল, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আরতী দত্ত, ঝিনাইদহের যুবনেতা মানিক বিশ্বাস মধু বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। এরপর মুক্তিযোদ্ধা সংসদসহ সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন সংগঠন ফুল দিয়ে জাতির পিতাকে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এছাড়াও আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে ঝিনাইদহে পালিত হচ্ছে দিবসটি।
অপরদিকে বাংলাদেশ শিশু একাডেমি ঝিনাইদহ আয়োজিত বঙ্গবন্ধু বিষয়ক সুন্দর হাতের লেখা, চিত্রাংকন, উপস্থিত বক্তৃতা ও রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ী ৩৬ জন শিশুর মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করে। এসময় উপস্থিত ছিলেন মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সাবেক প্রতিমন্ত্রী এবং জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হাই এমপি, সংসদ সদস্য তাহজীব আলম সিদ্দিকী সমী, জেলা প্রশাসক মোঃ মজিবর রহমান, জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা আয়ুব হোসেন প্রমুখ। অপরদিকে, শৈলকুপা উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা আওয়ামীলীগে আয়োজনে বিভিন্ন কর্মসুচি পালিত হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার কানিজ ফাতেমা লিজা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান। এছাড়াও হরিণাকুন্ডু উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বিভিন্ন কর্মসুচি পালিত হয়েছে। হরিণাকু-ু উপজেলা প্রশাসন জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শেষে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে।
পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি জানান, দিবসটিতে উপজেলা প্রশাসন দিনব্যাপী নানা কর্মসূচির আয়োজন করে। সকালে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান উপজেলা প্রশাসন, স্থানীয় সংসদ সদস্য (পক্ষে), মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, উপজেলা পরিষদ, পৌরসভা, থানা পুলিশ, লোনাপানি মৎস্য গবেষণা কেন্দ্র, আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠন, পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি, পাইকগাছা সরকারি কলেজ, ফসিয়ার রহমান মহিলা কলেজ, সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সরল দীঘির পাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শহীদ গফুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, প্রেসক্লাব, মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম, বনানী সংঘ, শিবসা সাহিত্য অঙ্গন, ষোলআনা ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি, হাঁটার সাথী সংগঠন, দিরাইজিং সান স্কুল সহ বিভিন্ন সরকারি ও সামাজিক প্রতিষ্ঠান। সকাল ১১টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আলোচনা সভা, পুরুস্কার ও যুব ঋণের চেক বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। বিকাল ৪টায় সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জেলা প্রশাসন আয়োজিত ১৯ হাজার ২শ’ বার কোরআন খতম ও দোয়া অনুষ্ঠান, সন্ধ্যায় উপজেলা পরিষদ চত্বরে আতস বাজি উৎসব ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে দিনব্যাপী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আনোয়ার ইকবাল মন্টু। উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ডি-সার্কেল হুমায়ন কবির, মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর, সহকারি কমিশনার ভুমি শাহরিয়ার হক, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শিয়াবুদ্দিন ফিরোজ বুলু, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শেখ শাহদাত হোসেন বাচ্চু, প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মোঃ লতিফুল ইসলাম, উপ- পরিচালক কামরুল হক, ওসি এজাজ শফি, ওসি তদন্ত আশরাফুল আলম, পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডিজিএম রেজায়েত আলী, জেলা পরিষদ সদস্য শেখ কামরুল হাসান টিপু, অধ্যক্ষ মিহির বরণ মন্ডল, রবিউল ইসলাম, প্রধান শিক্ষক অজিত কুমার সরকার, খালেকুজ্জামান সহ বিভিন্ন দপ্তরের সরকারি কর্মকর্তা ও প্রতিষ্ঠান প্রধানগন। অপরদিকে দুপুরে উপজেলা আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে কেক কাটা, আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।
ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধি জানান, ঝিকরগাছা জারগণী সংসদের উদ্যোগে বিকালে সংসদের মুক্তাঙ্গনে কেক কাটা, আলোচনা সভা ও বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সংসদের সভাপতি মুনিরুল আলম মিশর, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম শহিদ, জাহিদ নেওয়াজ ডিটো, মানিক হোসেন, মহিদুল ইসলাম বাদল, সোহেল হাওলাদার, রাশিদুল ইসলাম হিরু, গোলাম মোস্তফা সুমন প্রমুখ।
শ্যামনগর (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি জানান, শ্যামনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আনম আবুজার গিফারী, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি), অফিসার ইনচার্জ আলহাজ্ব নাজমুল হুদা, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ শাহিনুল ইসলামের বাস্তবায়নে ১৭ মার্চ রাত ১২ টা ১ মিনিটে উপজেলা পরিষদের নতুন ভবন চত্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালে পুষ্প অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন সংসদ সদস্য এসএম জগলুল হায়দার। এসময় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এসএম আতাউল হক দোলন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি), প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাসহ অন্যান্য দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। পরে উপজেলা পরিষদ হলরুমে আনুষ্ঠানিকভাবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সভাপতিত্বে কেক কাটেন প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য এসএম জগলুল হায়দার। এদিকে সুর্য্যাদয়ের সাথে সাথে সকল সরকারী বে-সরকারী প্রতিষ্ঠানে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। সকাল সাড়ে ১০ টায় এতিমদের মাঝে মিষ্টি বিতরণ করা হয়।
সকাল সাড়ে ১১ টায় নকিপুর পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আয়োজনে দেওয়াল পত্রিকা উদ্বোধন ও কেক কাটা অনুষ্ঠিত হয়। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কৃষ্ণানন্দ মুখার্জির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবুজার গিফারী। বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ এসএম এনামুল হক, সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা তুষার মজুমদার, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একাডেমী সুপারভাইজার মিনা হাবিবুর রহমান প্রমুখ।
ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধি জানান, ফুলতলা উপজেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অফিসের উদ্যোগে সকাল সাড়ে ৯টায় উপজেলা পরিষদ সভা কক্ষে এক আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী এবং বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে মাল্যাদান করা হয়। ইউএনও সাদিয়া আফরিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব শেখ আকরাম হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) রুলী বিশ্বাস, ওসি মাহাতাব উদ্দিন। প্রধান আলোচক ছিলেন সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার কাজী জাফর উদ্দিন। পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা মোঃ আফরুজ্জামানের পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান শরীফ মোহাম্মদ ভুইয়া শিপলু, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ ইনসাদ ইবনে আমিন, সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা রণজিৎ কুমার, সমাজসেবা কর্মকর্তা মোঃ শাহিন আলম, নির্বাচন কর্মকর্তা কল্লোল বিশ্বাস, বীজ কর্মকর্তা মোঃ আনোয়ার হোসেন, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা পারভেজ মোল্যা, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ফারহানা ইয়াসমিন, ভেটনারী স্যার্জন ডাঃ মোঃ তরিকুল ইসলাম, ডাঃ সুমাইয়া ইয়াসমিন, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফাতেমা বেগম, প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মুহা. আবুল কাশেম, প্রেসক্লাব সভাপতি তাপস কুমার বিশ্বাস, সাংবাদিক শেখ মনিরুজ্জামান, শিক্ষক জিয়ারুল ইসলামসহ উপজেলার সকল কর্মকর্তারা। পরে মহিলা বিষয়ক অফিসের উদ্যোগে অতিথিবৃন্দ কেক কাটেন এবং বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন। এছাড়া মিলিটারি কলেজিয়েট স্কুল খুলনা (এমসিএসকে)র উদ্যোগে সকালে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অধ্যক্ষ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ মাকসুদুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।
এদিকে সন্ধ্যায় ফুলতলা উপজেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান আওয়ামীলীগ নেতা কাজী আশরাফ হোসেন আশুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব শেখ আকরাম হোসেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সরদার শাহাবুদ্দিন জিপ্পী, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা বিলকিস আক্তার ধারা, আসলাম খান, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক মৃনাল হাজরা, আবু তাহের রিপন, শেখ আফছার আলী, কামরুজ্জামান নান্নু, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কে এম জিয়া হাসান তুহিন, ইউপি চেয়ারম্যান শরীফ মোহাম্মদ ভুইয়া শিপলু, আলী আজম মোহন, ইসমাইল হোসেন বাবলু, শাহাবাজ মোল্যা, এস কে আলী ইয়াছিন, শহীদুল্লাহ প্রিন্স, রবীন বসু, মোল্যা রবিউল ইসলাম, এ্যাড. আকতারুনেচ্ছা তিতাস, বেগম শামছুন্নাহার, শাপলা সুলতানা লিলি, সাহিদা ইসলাম নয়ন, আনিস সরদার প্রমুখ। পরে নেতৃবৃন্দ ১০১ পাউন্ড কেক কেটে জন্মবার্ষিকী উদযাপন করেন।