ঝিনাইদহে মায়ের পর মেয়ের প্রাণ নিলো করোনা

10

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে মায়ের পর এবার মেয়ের প্রাণ নিলো করোনা। মায়ের মৃত্যুর এক সপ্তাহ পর মেয়ে সালমা আক্তার মুন্নি (৩০) করোনায় আক্রান্ত হন।

মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। মুন্নি কালীগঞ্জ উপজেলার ঝনঝনিয়া গ্রামের হামিদ বিশ্বাসের মেয়ে। মুন্নি যশোর মহিলা কলেজ থেকে মাস্টার্স শেষ করে চাকরির জন্য পড়াশোনা করছিলেন।

মুন্নির ভাই রিফাত হোসেন জানান, ২০ দিন আগে শ্বাসকষ্ট শুরু হয় মুন্নির। গত সপ্তাহে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ঢাকায় রেফার্ড করেন চিকিৎসক।

যশোর থেকে মুন্নিকে রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। সেখানে করোনা চেকআপ করালে তার করোনা পজিটিভ আসে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

তিনি আরও জানান, গত মঙ্গলবার তার মা শাহিনা আক্তার মারা যান। তার মায়ের করোনা উপসর্গ ছিল; কিন্তু করোনা টেস্ট করানো হয়নি। তিনি সম্ভবত হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বলেও জানান তিনি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে কালীগঞ্জের কাস্টভাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আইয়ুব হোসেন বলেন, মুন্নির লাশ ঢাকা থেকে গ্রামে আনা হচ্ছে। তবে কখন এসে পৌঁছাবে তা এখনো নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।