জানুয়ারিতেই যশোরে বসতে যাচ্ছে স্মার্ট প্রি-পেমেন্ট মিটার

78

Last Updated on

>>যশোর ওজোপাডিকোর রয়েছে ৮৭ হাজার বিদ্যুৎ গ্রাহক
এবিসি নিউজ:সারাদেশের মতো যশোরের বিদ্যুৎ পরিষেবায় চালু হতে যাচ্ছে ‘স্মার্ট প্রি-পেমেন্ট’ মিটার। ‘ফ্রেন্ডলি আওয়ার’ সুবিধা সম্বলিত এই মিটারের আওতায় আসছে ওজোপাডিকোর ৮৭ হাজার গ্রাহক। নতুন ধাচের এই মিটারে রিচার্জ কার্ড ব্যবহারের মাধ্যমে প্রয়োজন মতো বিদ্যুৎ ব্যবহার করা যাবে। প্রকল্পের মাধ্যমে গ্রাহকদের ডিজিটাল মিটার পরিবর্তন করে প্রি-পেমেন্ট মিটার প্রতিস্থাপন করা হবে। রিজার্চ কার্ড থেকে প্রতিমাসে ৪০ টাকা কেটে নিয়ে মিটারের দাম সমন্বয় করা হবে। তবে মিটারের দাম ঠিক কত হবে সংশ্লিষ্টদের কেউ সেটি নিশ্চিত করতে পারেনি।
ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড (ওজোপাডিকো) সূত্র জানায়, চলতি মাসের শেষের দিকে না হলে ফেব্রুয়ারির শুরুতে প্রি-পেমেন্ট এই মিটার প্রতিস্থাপনের কাজ শুরু হবে। স্মার্ট প্রি-পেমেন্ট মিটার প্রকল্পের আওতায় মিটারের এই প্রতিস্থাপন কাজ সম্পন্ন হবে। ইতিমধ্যে প্রকল্পের এই কাজের জন্য টেন্ডার (দরপত্র) প্রক্রিয়াও শেষ হয়েছে। ওজোপাডিকো’র যশোর বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-২’র নির্বাহী প্রকৌশলী শহিদুল ইসলাম জানান, স্মার্ট প্রি-পেমেন্ট মিটার নেওয়ার জন্য অগ্রিম কোন টাকা দিতে হবে না। প্রতিস্থাপনের রিচার্জ ব্যালান্স থেকে প্রতিমাসে ৪০ টাকা করে কেটে নিয়ে মিটারের দামের সাথে সমন্বয় করা হবে।
জানা গেছে, নতুন ধরণের এই মিটার শর্ট সার্কিট জনিত দুর্ঘটনা রোধ করে গ্রাহকের বিদ্যুৎ ব্যবহার নিরাপদ করবে। এমনকি বিল নিয়ে গ্রাহকের অভিযোগ ও হয়রানির অবসান ঘটাবে। এই মিটার চালু হলে গ্রাহকরা ভেন্ডিং প্রি-পেমেন্ট মিটারিং ভেন্ডিং স্টেশন থেকে কিংবা মোবাইল ভেন্ডিংয়ের মাধ্যমে বিল পরিশোধ করতে পারবেন। প্রি-পেমেন্ট মিটারে গ্রাহক যত টাকা রিচার্জ করবেন, তত টাকার বিদ্যুৎ ব্যবহারের পর সরবরাহ বন্ধ হয়ে যাবে। তবে বন্ধ হওয়ার আগে গ্রাহকের মিটার সংকেত দেবে, যা দেখে গ্রাহক যাতে ফের রিচার্জ করে নিতে পারেন। অবশ্য কোনো গ্রাহকের রিচার্জ বৃহস্পতিবার বিকেলে শেষ হয়ে গেলে রোববার দুপুর ১২টা পর্যন্ত বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হবে না। শুক্র ও শনিবার বা সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় থাকায় রিচার্জ করা সম্ভব হবে না বলে মিটারে এই ‘ফ্রেন্ডলি আওয়ার’ রাখা হয়েছে। ফ্রেন্ডলি আওয়ার শেষে গ্রাহক যখন রিচার্জ করবেন, তখন বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে রোববার পর্যন্ত রিচার্জ করার আগে পর্যন্ত ব্যবহৃত বিদ্যুতের বিল সমন্বয় হয়ে যাবে।
ওজোপাডিকো’র যশোর বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-২’র নির্বাহী প্রকৌশলী রেজাউল করিম জানান, মিটারের ব্যালান্স শেষ হয়ে গেলেও তাৎক্ষণিকভাবে ১০০ টাকা অগ্রিম ব্যালান্স নেওয়ার সুবিধা থাকছে। ফলে মিটারের ব্যালান্স শেষ হয়ে গেলেও বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ হওয়ার সম্ভাবনা নেই।