চীনে কমেছে জন্ম হার:সন্তান নিলে দম্পতিকে ১০ লাখ ইউয়ান দেয়ার প্রস্তাব

25

চীনে কমে যাওয়া জন্ম হার বাড়াতে নতুন এক প্রস্তাব দিয়েছেন দেশটির এক প্রফেসর। সরকারের কাছে তিনি আহ্বান জানিয়েছেন, কোনও দম্পত্তি সন্তান নিলে তাদের দশ লাখ ইউয়ান বা এক লাখ ৫৬ হাজার মার্কিন ডলার দেওয়া হোক। শিশুদের বড় করে তোলার খরচ বাড়তে থাকা নিয়ে দেশটিতে তীব্র বিতর্ক চলার মধ্যেই এই প্রস্তাব দিয়েছেন ওই প্রফেসর। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

চীনের সর্বশেষ আদম শুমারিতে দেখা গেছে ২০১০-২০২০ সালের মধ্যে জন্মহার কয়েক দশকের মধ্যে সর্বনিম্ন। ফলে আশঙ্কা বাড়ছে ক্রমবর্ধমান বয়স্ক জনগোষ্ঠীকে সহায়তা করতে ব্যর্থ হবে শ্রমজীবী জনগোষ্ঠী।

এমন পরিস্থিতি ঠেকাতে পেকিং বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অব ইকোনোমিকসের প্রফেসর লিয়াং জিয়ানঝাং দেশটির সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম উইবুতে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। ওই ভিডিওতে তিনি বলেছেন, সন্তান জন্মদানে উৎসাহিত করতে দশ লাখ ইউয়ান দেওয়া হলে চীনের জিডিপির দশ শতাংশ ব্যয় করে জন্মহার বর্তমানের ১.৩ থেকে বাড়িয়ে ২.১ করা সম্ভব হবে। এই দশ লাখ ইউয়ান নগদ, কর অব্যাহতি কিংবা বাড়ি নির্মাণের ভর্তুকি হিসেবে দেওয়া যেতে পারে বলে জানান তিনি।

এই প্রফেসর বলেন, ভবিষ্যতের জনগোষ্ঠী অর্থনীতিতে যে অবদান রাখবে তা দিয়ে এই খরচ পুষিয়ে নেওয়া যাবে। তিনি বলেন, ‘একটি পরিবার যদি আরেকটি সন্তান জন্ম দেয় তাহলে সেই শিশুটি ভবিষ্যতে সামাজিক নিরাপত্তা, রাজস্ব আয় হিসেবে যা প্রদান করবে তা দশ লাখ ইউয়ানের চেয়ে অনেক বেশি হয়ে যাবে।’

চীনা প্রফেসরের এই বক্তব্য উইবুতে সাড়া ফেলেছে। অনেক ব্যবহারকারী পাল্টাপাল্টি প্রশ্ন তুলে বলছেন, এভাবে রাজস্ব আয় ব্যবহার করা কি যৌক্তিক হবে? আবার অনেকেই বলছেন দশ লাখ ইউয়ান দিয়ে শিশুর শিক্ষা খরচ মেটানো যাবে কি?