চাচাতো ভাই’র লাঠির আঘাতে প্রাণ গেল কৃষকের

15

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:সাতক্ষীরার কলারোয়ায় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে চাচাতো ভাইয়ের লাঠির আঘাতে প্রাণ গেল কৃষকের।

মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) সকাল ১০টার দিকে উপজেলার দেয়াড়া মাঠপাড়া মাছিনগর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ঠেকাতে গিয়ে এক নারী ও তার কোলের শিশু আহত হয়েছে। পুলিশ ৩ মহিলাসহ ৪জনকে গ্রেফতার করেছে।
নিহতের নাম মোঃ আমজাদ আলী গাজী (৫১)। তিনি সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার দেয়াড়া মাঠপাড়া মাছিনগর গ্রামের মৃত ওমর আলী গাজীর ছেলে।
আটককৃতরা হলেন, সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার দেয়াড়া মাঠপাড়া মাছিনগর গ্রামের মৃত শাখাওয়াত হোসেনের ছেলে আনসার আলী, তার স্ত্রী ফুলমতি, তাদের প্রবাসী দুই ছেলে দেলওয়ারের স্ত্রী রিক্তা ও শাহ আলমের স্ত্রী সায়মা।
পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জান যায়, আমজাদ হোসেন গাজীর সাথে জমিজমা নিয়ে তার চাচাতো ভাই আনসার আলী গাজীর বিরোধ চলে আসছিল। বিবাদমান জমি নিয়ে আদালত ১৪৫ ধারা জারি করে। মঙ্গলবার সকালে আমজাদ হোসেন ওই জমির আইল ছাটার কাজ করার সময় আনসার আলী বাধা দেন। এসময় আমজাদ হোসেন ও আনসার আলীর পরিবারের সদস্যরা কথা কাটাকাটির একপর্যায় বিবাদে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে আনসার আলী পাশে থাকা বাঁশ নিয়ে আমজাদ হোসেনের মাথায় আঘাত করেন। এতে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান আমজাদ হোসেন গাজী। এসময় শ্বশুরকে ঠেকাতে গিয়ে আমজাদ হোসেনের পুত্রবধূ ও তার কোলে থাকা দুই বছর বয়সী নাতি আহত হয়। তাদের কলারোয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
এদিকে, ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ আনসার আলী ও তার স্ত্রীসহ দুই পুত্রবধূকে আটক করেছে।
কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মীর খায়রুল কবির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়েছে। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।