গণধর্ষণের প্রতিবাদে মহিলাদলের মানববন্ধন

এবিসি বাংলা ডেস্কএবিসি বাংলা ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  04:10 AM, 09 March 2019

এবিসি ডেস্ক: আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেছে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। কিন্তু মানববন্ধনের শুরুতে যে ব্যানার ব্যবহার করা হয়েছে তাতে সকলের চোখ কপালে উঠেছে। ব্যানারে লেখা ছিল- ‘আন্তর্জাতিক নারী দিবস ২০১৯ উপলক্ষে নারীর সমঅধিকার প্রতিষ্ঠা এবং নারী নির্যাতন, খুন ও গণধর্ষণ বন্ধের প্রতিবাদে মানববন্ধন’।

পরে অবশ্য ব্যানারের ‘বন্ধে’ শব্দটা সাদা রঙয়ে ঢেকে দেয়া হয়। কিন্তু ততক্ষণে ওই ছবি সামাজিক মাধ্যমের বদৌলতে পৌঁছে যায় বিএনপি নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন মানুষের কাছে। আর এতেই তোপের মুখে পড়তে হয়েছে মহিলা দলের নেত্রীদের। নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিএনপির মধ্যম সারির একজন নেতা জাগো নিউজকে বলেন, অনেকেই মহিলা দল সভাপতি সাধারণ সম্পাদককে ফোন করে বলছেন, ‘আপনারা ধর্ষণের বিরুদ্ধে মানববন্ধন করলেন না কি ধর্ষণের সমর্থনে?’

অনেকে সমালোচনা করে বলছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্ররাজনীতি করছেন-এমন অনেকেই এখন মহিলা দলে রয়েছেন। তাদের মতো নেতৃত্ব থাকতে এই ধরনের ভুল কীভাবে হতে পারে? আর এই ভুল ব্যানার নিয়ে কীভাবে মহিলা দল কর্মসূচি করল? জবাবে বিএনপি নেতারা বলছেন, ‘যারা করেছেন এটা তাদের ভুল হয়েছে। পরে ভুলটা চোখে পড়ার পর সংশোধন করা হয়েছে।’

এ বিষয়ে জানতে মহিলা দল সভাপতি আফরোজা আব্বাসকে একাধিকবার তার মোবাইল ফোনে কল করলেও তিনি রিসিভ করেননি। অন্যদিকে, ইডেনের সাবেক নেত্রী মহিলা দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হেলেন জেরিন খানও ফোন রিসিভ করেননি।

তবে মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ বলেছেন, ‘প্রিন্ট মিসটেক, ভুল হতেই পারে। সারা দেশে এত ভুল সেটা নিয়ে মানুষের মাথাব্যথা নাই। আমাদের তো আরও একশটা পোস্টার, ফ্যাস্টুন, প্ল্যাকার্ড ছিল। সেখানে কী লেখা ছিল সেটাও কিন্তু দেখার বিষয়। এ ছাড়া আমাদের বক্তব্যে কী ছিল সেটাও আপনাদের দেখতে হবে। আমরা গণধর্ষণ বন্ধে কর্মসূচি দিয়েছি। আশা করি সবাই বুঝতে পেরেছেন।’

মানববন্ধনের প্রধান অতিথি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘ভুল হতেই পারে। এটাতো গুরুত্বপূর্ণ কোনো বিষয় না। মূল বিষয় হচ্ছে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল নারী নির্যাতন, খুন ও গণধর্ষণের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে।’

ফখরুল বলেন, ‘ভুল নিয়ে এত মাথাব্যথা কেন? সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমদের কাজ নেই তো, তাই তারা এইসব (সমালোচনা) করতেই পারে। এই করে করে আসল জায়গা থেকে আমরা সরে যাচ্ছি। আমরা এখন আর আসল জায়গায় কেউ যাই না। একটা ভুল নিয়ে সবাই মাতামাতি করি কিন্তু সারা দেশে নারীদের ওপর যে নির্যাতন হচ্ছে, বেগম খালেদা জিয়াকে যে অন্যায়ভাবে মিথ্যা মামলা দিয়ে আটক করে রেখেছে-এটা তাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ না। গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে ভুলগুলো।’

সূত্র:জাগোনিউজ

বাংলাদেশ

আপনার মতামত লিখুন :