ক্রেতা সেজে বাঘের চামড়াসহ চোরাকারবারীকে ধরলো র‌্যাব

19

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি:বাগেরহাটের শরণখোলায় বাঘের চামড়াসহ গাউস ফকির (৪৫) নামে এক চোরাকারবারীকে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে (১৯ জানুয়ারি) উপজেলার রায়েন্দা-রাজৈর বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকায় বন বিভাগ ও র‌্যাব-৮ এর একটি দল যৌথ অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে। এ সময় তার কাছ থেকে একটি বাঘের চামড়া ও নগদ ১৩ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়।

আটক গাউস ফকির উপজেলার দক্ষিন সাউথখালী এলাকার বাসিন্দা মো. রশীদ ফকিরের ছেলে। উদ্ধারকৃত বাঘের চামড়াটি ৮ ফুট ১ ইঞ্চি লম্বা এবং ৩ ফুট ১ ইঞ্চি চওড়া।
সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মোহাম্মাদ বেলায়েত হোসেন বাঘের চামড়া উদ্বারের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গাউস ফকির বাঘের চামড়াটি বিক্রির চেষ্টা করছিলেন। বন কর্মীরা ক্রেতা সেজে চামড়াটি ক্রয়ের জন্য গাউসের সাথে যোগাযোগ করেন। সর্ব শেষ ১৩ লাখ টাকার চুক্তিতে চামড়াটি ক্রয়ের সিদ্ধান্ত হয় এবং পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী র‌্যাব-৮ এর সাথে যোগাযোগ করে তাদের সহযোগিতায় অভিযান পরিচালনা করা হয় এবং টাকা নিয়ে চামড়াটি বুঝিয়ে দেয়ার সময় তাকে হাতে-নাতে আটক করা হয়। গাউস ফকিরকে র‌্যাব-৮ এর হেড কোয়ার্টার বরিশালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ২০ জানুয়ারি দুপুরে বাগেরহাট পূর্ব বন বিভাগের বিভাগীয় কার্যালয়ে আনা হবে এবং বন্যপ্রাণী নিধন আইনে মামলা দায়ের করে গাউসকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।