কাজী হলো কারাদন্ড: বরের হাত ধরে শ্বশুরবাড়ির উদ্দেশ্যে নববধুও রওনা

এবিসি বাংলা ডেস্কএবিসি বাংলা ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  07:13 PM, 14 March 2019

আব্দুর রহিম রানাঃ বাল্যবিয়ে দেয়ার অপরাধে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার মাঝদিয়া গ্রামে রবিউল ইসলাম নামে এক কাজীকে ৭ দিনের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। এ সময় বরপক্ষকে ২০ হাজার ও কন্যাপক্ষকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। পড়ুন>>বাল্য বিয়ে পড়িয়ে কাজীর কারাদন্ড
তবে বিয়ে সম্পন্ন হওয়া বউ আদুরী বর শরিফুল ইসলামের হাত ধরে যশোরের শংকরপুর গ্রামে শ্বশুরবাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হন বলে জানান স্থানীয়রা।
বুধবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুবর্ণা রানী সাহা এই দণ্ডাদেশ দেন।
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার মাঝদিয়া গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। দণ্ডপ্রাপ্ত কাজী রবিউল ইসলামের বাড়ি বারবাজার বেলাট গ্রামে।
কালীগঞ্জ উপজেলার মাঝদিয়া গ্রামের কাশেম আলীর কন্যা আদুরী (১৫) আয়েশা মেমোরিয়াল দাখিল মাদ্রাসার দশম শ্রেণির ছাত্রী ও বর শরিফুল ইসলামের বাড়ি যশোরের শংকরপুর গ্রামে।
কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুবর্ণা রানী সাহা জানান, বুধবার বিকালে উপজেলার মাঝদিয়া গ্রামে একটি বাল্যবিয়ে দেয়ার খবর পেয়ে পুলিশ নিয়ে সেখানে হাজির হন। মেয়েটির বয়স না হওয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে কাজী রবিউল ইসলামকে ৭ দিনের কারাদণ্ড দেয়া হয়। এ সময় ছেলেপক্ষকে ২০ হাজার ও কন্যাপক্ষকে দুই
হাজার টাকা জরিমানা করেন।
তবে বিয়ে সম্পন্ন হওয়া বউ তার স্বামীর হাত ধরে শ্বশুরবাড়িতে চলে যায়।

 

খুলনা বিভাগ

আপনার মতামত লিখুন :