করোনায় একদিনে ২৫ জনের মৃত্যু

22

গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে করোনায় মারা গেছেন ২৫ জন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মারা গেলেন ১২ হাজার ১৪৯ জন। এদিকে এ সময়কালে শনাক্ত হয়েছেন ৩৬৩ জন, তাদের নিয়ে দেশে সরকারি হিসাবে এখন পর্যন্ত শনাক্ত হলেন সাত লাখ ৮০ হাজার ১৫৯ জন।  গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৬০১ জন। তাদের নিয়ে এখন পর্যন্ত সুস্থ হলেন সাত লাখ ২২ হাজার ৩৬ জন।

রবিবার (১৬ মে) স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনা বিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা রোগী শনাক্তের হার ছয় দশমিক ৬৯ শতাংশ এবং এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৬৭ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯২ দশমিক ৫৫ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার এক দশমিক ৫৬ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে পাঁচ হাজার ৫০৮টি এবং পরীক্ষা করা হয়েছে পাঁচ হাজার ৪৩০টি। দেশে এখন পর্যন্ত করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হলো ৫৭ লাখ সাত হাজার ৭১৬টি। এরমধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ৪১ লাখ ৮২ হাজার ৪৯১টি এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১৫ লাখ ২৫ হাজার ২২৫টি।

দেশে বর্তমানে ৪৫৯টি পরীক্ষাগারে করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে জানিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, এরমধ্যে আরটি-পিসিআরের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হয়েছে ১২৮টি পরীক্ষাগারে, জিন এক্সপার্ট মেশিনের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে ৩৬টি পরীক্ষাগারে এবং র‌্যাপিড অ্যান্টিজেনের মাধ্যমে পরীক্ষা করা হচ্ছে ২৯৫টি পরীক্ষাগারে।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২৫ জনের মধ্যে পুরুষ ১৮ জন আর নারী সাত জন। এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে পুরুষ মারা গেছেন আট হাজার ৭৯৭ জন এবং নারী তিন হাজার ৩৫২ জন।

বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে অধিদফতর জানিয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ষাটোর্ধ্ব ১৩ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ছয় জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে চার জন এবং ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে দুই জন।

মারা যাওয়া ২৫ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন ১৩ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ১১ জন এবং বরিশাল বিভাগের একজন।

২৫ জনের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন ২০ জন, বেসরকারি হাসপাতালে চার জন এবং বাড়িতে মারা গেছেন একজন।

সুস্থ হওয়া ৬০১ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন ১৮৯ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ১৩৩ জন, রংপুর বিভাগের ১৩ জন, খুলনা বিভাগের ৭৮ জন, বরিশাল বিভাগের ৬০ জন, রাজশাহী বিভাগের ১০৫ জন, সিলেট বিভাগের ১৫ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগের আট জন।