একনেকে আড়াই হাজার কোটি টাকার ১০ প্রকল্প অনুমোদন

এবিসি বাংলা ডেস্কএবিসি বাংলা ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  06:56 PM, 28 July 2021

>>একনেকের সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭ নির্দেশনা
এবিসি ডেস্ক:
সেতু ও কালভার্ট নির্মাণে নৌ-চলাচলের জন্য উপযোগী উচ্চতা ঠিক রাখাসহ অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে ৭টি অনুশাসন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ বুধবার (২৮ জুলাই) নতুন অর্থবছরের প্রথম এবং বর্তমান সরকারের চলতি মেয়াদের ৬১তম একনেক সভায় এই অনুশাসন দেন বলে বৈঠক শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান সাংবাদিকদের জানান। পরে নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলমও এসব অনুশাসনের ব্যাখ্যা দেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে একনেকে প্রায় ২ হাজার ৫৭৫ কোটি ৪২ লাখ টাকা ব্যয় সংবলিত ১০টি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। শেরেবাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এই বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসনের কথা উল্লেখ করে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘দেশে নতুন যেসব সড়ক বা মহাসড়ক নির্মাণ করা হবে—সেখানে আন্ডারপাস, ওভারপাস, ইউলুপ ইত্যাদি বিষয়ে নজর রাখার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।’ অনেক জায়গায় মানুষের চলাচল বাধাগ্রস্ত হচ্ছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, এখন থেকে যত রাস্তাঘাট করা হবে এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। যাতে মানুষ ও যানবাহন চলাচলে কোনও বিঘ্ন না ঘটে। তিনি সড়ক বিভাগকে এই নির্দেশনা দিয়েছেন।’

অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশ চ্যান্সেরি ভবন নির্মাণ প্রকল্প পাস করার সময় প্রধানমন্ত্রী ভবন নির্মাণে ওই দেশের নিয়ম-কানুন অনুসরণ করতে বলেছেন।

করোনাকালে দেশে ফেরত আসা প্রবাসীদের কর্মসংস্থানে নেওয়া একটি প্রকল্প পাস হওয়ার সময় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার উদ্ধৃতি দিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘তারা (প্রবাসীরা) এতদিন আমাদের দিয়েছেন। এখন তাদের আমাদের দিতে হবে। তারা যাতে পুনরায় আমাদের সমাজে রিইন্টিগ্রেড হতে পারে। তারা যেন সম্মানজনক পেশায় যুক্ত হতে পারে, তার জন্য সহায়তা দিতে হবে।’

এ বিষয়ে পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম বলেন, ‘এ পর্যন্ত পাঁচ লাখ প্রবাসী দেশে ফিরে এসেছেন। এরমধ্যে প্রত্যাগত অভিবাসী কর্মীদের পুনঃএকত্রীকরণের লক্ষ্যে আনুষ্ঠানিক খাতে কর্মসংস্থান সৃজনে সহায়ক প্রকল্পের মাধ্যমে দুই লাখ শ্রমিককে সহায়তা করা হবে। এ প্রকল্পের মাধ্যমে প্রবাসী শ্রমিকদের ডাটাবেজ করা হবে।’

নারীদের কম্পিউটার প্রশিক্ষণের জন্য নেওয়া একটি প্রকল্পে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী নারীদের জন্য এ ধরনের প্রশিক্ষণ ব্যাপকভাবে গ্রহণ করতে বলেছেন। তিনি এই বিষয়গুলো প্রকল্পের মধ্যে না এনে রাজস্ব বাজেটে অন্তর্ভুক্ত করতে বলেছেন।’

এ বিষয় প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, নারীদের প্রশিক্ষণের বিষয়টি রাজস্ব বাজেটে যেতে পারে। এটাকে প্রকল্প আকারে আনার দরকার পড়ে না। নিয়মিত কার্যক্রমের মধ্যে নিয়ে আসা যায়।’

ব্রিজ নির্মাণে প্রধানমন্ত্রীর সতর্কতার কথা ‍উল্লেখ করে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘এই বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী আগেও কয়েকবার বলেছেন। আজও বলেছেন যে ব্রিজ নির্মাণে উচ্চতা যেন ঠিক থাকে। জোয়ার-ভাটায় বাংলাদেশে পানি বাড়ে-কমে। এজন্য নৌ, সড়ক ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়কে সমন্বয় করে এসব ব্রিজ-কালভার্ট তৈরি করবেন। সেতুগুলোর উচ্চতা যেন যথাযথ হয়, সেটা দেখতে হবে।’

মুন্সীগঞ্জে পদ্মার ভাটিতে বাঁধ নির্মাণ বিষয়ে প্রকল্প পাসের সময় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার কথা তুলে ধরে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘এখানে-সেখানে অনেক বালুমহাল গড়ে উঠেছে। এগুলো যথাযথ স্থানে স্থানান্তর করতে হবে। বালু ব্যবসা বন্ধের কথা বলছি না। কিন্তু যার যেখানে ইচ্ছা এটা করবে, এটা ঠিক নয়। এজন্য প্রধানমন্ত্রী নৌসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে ব্যবস্থা নিতে বলেছেন।’

বিসিক খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্পনগরী প্রকল্প পাসের সময় প্রধানমন্ত্রী ওই শিল্পনগরীকে অন্যান্য খাদ্যদ্রব্যের পাশাপাশি দুধ ও দুগ্ধজাত খাদ্য তৈরির ইউনিট রাখার নির্দেশনা নিয়েছেন বলে মন্ত্রী জানান।

একনেকে পাস হলো যেসব প্রকল্প

১. ‘ঢাকা-চট্টগ্রাম জাতীয় মহাসড়কে ৩টি আন্ডারপাস এবং পদুয়ার বাজার ইন্টারসেকশনে ইউলুপ নির্মাণ প্রকল্পটি চলতি বছরের জুলাই থেকে জুন ২০২৪ সালে বাস্তবায়ন করবে সড়ক ও জনপথ অধিদফতর (সওজ)। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে মোট ব্যয় হবে ৫৬৮ কোটি ৯৩ লাখ টাকা।

২. জেলা মহাসড়ক যথাযথ মান ও প্রশস্ততা উন্নীতকরণের (ময়মনসিংহ জোন) প্রথম সংশোধিত প্রকল্পটি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে ব্যয় হবে ১১১ কোটি ৫৮ লাখ টাকা।

৩. পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ‘অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরায় বাংলাদেশ চ্যান্সেরি ভবন নির্মাণ’ প্রকল্প অনুমোদন পেয়েছে একনেকে। ১৪৭ কোটি ৮৭ লাখ টাকা ব্যয়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে বাংলাদেশ হাইকমিশন, ক্যানবেরা।

৪. বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের ‘ইনস্টিটিউট অব টিস্যু ব্যাংকিং অ্যান্ড বায়োমেটেরিয়াল রিসার্চ-এর সেবা ও গবেষণা সুবিধাদির আধুনিকায়ন ও সম্প্রসারণ’ প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। ১৭৩ কোটি ৮০ লাখ টাকার এই প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন।

৫. মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ‘জেলাভিত্তিক মহিলা কম্পিউটার প্রশিক্ষণ (৬৪ জেলা)’ তৃতীয় সংশোধিত প্রকল্প অনুমোদন হয়েছে। ১১৮ কোটি ৭৯ লাখ টাকায় জুন ২০২৩ সালে এটি বাস্তবায়ন করবে জাতীয় মহিলা সংস্থা।

৬. স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে পূর্ণাঙ্গ শিশু কার্ডিওলজি ও শিশু কার্ডিয়াক সার্জারি ইউনিট স্থাপন’ প্রকল্পটি অনুমোদন পেয়েছে। ৭২ কোটি টাকায় প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়।

৭. স্থানীয় সরকার বিভাগের ‘দেশের দক্ষিণাঞ্চলে আয়রন ব্রিজ পুনর্নির্মাণ/পুনর্বাসন’ প্রকল্পটি প্রথম সংশোধন হয়েছে একনেকে। দুই হাজার ৩৩৪ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর (এলজিইডি)।

৮. পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের ‘পদ্মা বহুমুখী সেতুর ভাটিতে মুন্সীগঞ্জ জেলার লৌহজং ও টংগিবাড়ী উপজেলাধীন বিভিন্ন স্থানে পদ্মা নদীর বাম তীর সংরক্ষণ’ প্রকল্পটি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। ৪৪৬ কোটি টাকার প্রকল্পটি বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড (বাপাউবো) বাস্তবায়ন করবে।

৯. প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের ‘প্রত্যাগত অভিবাসী কর্মীদের পুনঃএকত্রীকরণের লক্ষ্যে অনানুষ্ঠানিক খাতে কর্মসংস্থান সৃজনে সহায়ক’ প্রকল্পটি অনুমোদন পেয়েছে। ৪২৭ কোটি ৩০ লাখ টাকার প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড।

১০. শিল্প মন্ত্রণালয়ের ‘বিসিক খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্পনগরী, ঠাকুরগাঁও’ প্রকল্পটি একনেকের অনুমোদন পেয়েছে। ৯৮ কোটি ৬১ লাখ টাকায় এটি বাস্তবায়ন করবে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক)।

অর্থনীতি

আপনার মতামত লিখুন :