এইচএসসি’র বাংলা প্রথমপত্রেও নকল:যশোর বোর্ডে এক পরীক্ষার্থী বহিষ্কার

এবিসি বাংলা ডেস্কএবিসি বাংলা ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  09:37 PM, 01 April 2019

>>>পরীক্ষায় অনুপস্থিত সহস্রাধিক

এবিসি নিউজ: যশোর শিক্ষা বোর্ডের অধিনে এইচএসসি পরীক্ষার আজ সোমবার প্রথম দিন কঠোর নিরাপত্তা ও কড়া নজরদারির মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলা ১মপত্র পরীক্ষাতেও বহিষ্কারের ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া প্রথমদিনেই সহস্রাধিক শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অনুপস্থিত ছিল। পড়ুন>>>সরকারি মাল দরিয়ায় ফেল

জানা যায়, নড়াইল নবগঙ্গা কলেজ পরীক্ষা কেন্দ্রে নকল করার অপরাধে এক শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। বহিষ্কারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর মাধব চন্দ্র রুদ্র। সোমবার সকাল ১০টায় শুরু হয়ে পরীক্ষা শেষ হয় দুপুর একটায়।
এবার যশোর বোর্ডের অধীনে ২২৪টি কেন্দ্রে এক লাখ ২৮ হাজার ৮০৯ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। যাদের মধ্যে প্রথম দিন অনুপস্থিত ছিলো এক হাজার ১৫৫ জন পরীক্ষার্থী।
এর মধ্যে যশোর জেলার ৪৫টি কেন্দ্রে অনুপস্থিত ছিলো ২০৬ জন, খুলনা জেলায় ২০৫ জন, বাগেরহাট জেলায় ৭৪ জন, সাতক্ষীরা জেলায় ১০৩ জন, কুষ্টিয়া জেলায় ১৩৮ জন, চুয়াডাঙ্গা জেলায় ৮২ জন, মেহেরপুর জেলায় ৪৪ জন, নড়াইল জেলায় ৬৪ জন, ঝিনাইদহ জেলায় ১৭৩ জন ও মাগুরা জেলায় ৬৭ জন শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলো।
পরীক্ষা শেষে কথা হয় উপশহর মহিলা ডিগ্রী কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী মেহেবুবা আক্তার নাজরানার সাথে। সে জানায়, পরীক্ষা ভালো হয়েছে। প্রশ্ন গতানুগতিক এসেছে।
পরীক্ষা দিয়ে আসা যশোর মণিহার বৌবাজার এলাকার বাসিন্দা সরকারি সিটি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী জাহিদ হাসান জানায়, প্রশ্ন সহজ হয়েছে। তাই পরীক্ষা অনেক ভালো হয়েছে। তবে এমসিকিউ প্রশ্ন একটু কঠিন ছিলো।
পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর মাধব চন্দ্র রুদ্র বলেন, এবার প্রশ্ন ফাঁসের কোন গুজব বা অভিযোগ পাওয়া যায়নি। এ ধরনের গুজবে কান না দেয়ার জন্য শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের প্রতি আমরা আহবান জানিয়েছি।

খুলনা বিভাগ

আপনার মতামত লিখুন :