ইসরায়েলি আগ্রাসনের নিন্দা জানাতে ব্যর্থ হলো জাতিসংঘ

27

ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরায়েলি আগ্রাসনের নিন্দা জানাতে আবারো ব্যর্থ হলো জাতিসংঘ। নিরাপত্তা পরিষদে যুক্তরাষ্ট্রের বাধার কারণে রোববারের বৈঠকও শেষ হয়েছে কোনো ফলাফল ছাড়া। এদিন বাইডেন প্রশাসনের আপত্তিতেই ইসরায়েলি কর্মকাণ্ডের নিন্দা জানানোর বিষয়ে সর্বসম্মত সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারেনি পরিষদ।

জানা যায়, ইসরায়েল-ফিলিস্তিন ইস্যুতে আলোচনার জন্য চীন, তিউনিসিয়া ও নরওয়ের আহ্বানে সাড়া দিয়ে রোববার জরুরি বৈঠকে বসেছিল জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য দেশগুলো। গত এক সপ্তাহে ফিলিস্তিন বিষয়ে এটি ছিল তাদের তৃতীয় বৈঠক।

আগের দুটি বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্রের বাধার কারণে যৌথ বিবৃতি প্রকাশ এবং ইসরায়েলের নিন্দা জানানো সম্ভব হয়নি। ওই বৈঠকগুলোতে নিরাপত্তা পরিষদের ১৫টি সদস্য দেশের মধ্যে ১৪টি দেশই সহিংসতা কমানোর আনার আহ্বান জানালেও এর বিরোধিতা করে একমাত্র যুক্তরাষ্ট্র। আরও খবর>>হোয়াইট হাউসে ’ঈদ ডিনার’ বয়কটের আহবান মুসলিমদের

তৃতীয় বৈঠকে চীন, নরওয়ে ও তিউনিসিয়া ইসরায়েলি আগ্রাসনে গাজায় সৃষ্ট মানবেতর পরিস্থিতি এবং বেসামরিক মানুষজনের প্রাণহানির ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে অবিলম্বে যুদ্ধ বন্ধ করে সকল আন্তর্জাতিক আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই ফিলিস্তিন-ইসরায়েল ইস্যুতে মার্কিন নীতির কঠোর সমালোচনা করে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র বরাবরই আন্তর্জাতিক ন্যায়বিচারের বিপরীতে অবস্থান নিয়েছে। কেবল ওয়াশিংটনের বিরোধিতার কারণেই নিরাপত্তা পরিষদ ফিলিস্তিন ইস্যুতে ঐকমত্যে পৌঁছাতে পারছে না।

jagonews24

চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেছেন, ইসরায়েলি আগ্রাসনে ফিলিস্তিনের বহু নিরীহ মানুষ নিহত হলেও যুক্তরাষ্ট্র টু শব্দ করছে না। এতে মানবাধিকার বিষয়ে মার্কিন ভণ্ডামি প্রকাশ পাচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্র এর আগেও নিরাপত্তা পরিষদে ইসরায়েলের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গ্রহণের চেষ্টায় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। দখলদারদের সমর্থন জানিয়ে মার্কিন প্রশাসন এ পর্যন্ত অন্তত ৪৪ বার ইসরাইল-বিরোধী নিন্দা প্রস্তাবে ভেটো দিয়েছে। বলা যায়, যুক্তরাষ্ট্রের এই বাধার কারণেই জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ আজ পর্যন্ত ইসরায়েলের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিতে পারেনি।

এদিকে, মার্কিন সমর্থনপুষ্ট ইসরায়েল সোমবার টানা অষ্টমদিনের মতো অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় বিমান হামলা চালিয়েছে। তাদের বর্বরোচিত এ হামলায় এ পর্যন্ত ৫৮ শিশুসহ প্রায় ২০০ ফিলিস্তিনি প্রাণ হারিয়েছেন। আহত হয়েছেন এক হাজারেরও বেশি মানুষ।

সূত্র: পার্সটুডে, আল জাজিরা