ইরানে ৫.৯ মাত্রার ভূমিকম্প

18

ইরানের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের বুশেহের প্রদেশে রোববার ৫.৯ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। এতে এখন পর্যন্ত পাঁচজনের আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এই প্রদেশে একটি পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র রয়েছে। তবে ভূমিকম্পের ফলে কোনো বড় ধরণের ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

ইরানের ভূমিকম্প গবেষণা সংস্থা জানিয়েছে, দশ কিলোমিটার গভীর এই ভূমিকম্পটি বন্দর নগর গেনাভেহ’র ২৭ কিলোমিটার জুড়ে বিস্তৃত হয়েছে। স্থানীয় সময় সকাল ১১:১১ মিনিটে ভূমিকম্পটি আঘাত হানে। বুশেহেরের কাছাকাছি প্রদেশগুলোতেও কম্পন অনুভূত হয়েছে।

রাষ্টীয় সংবাদ সংস্থা ইরনা জানিয়েছে, কম্পন ও কয়েকটি আফটারশকে ভূমিকম্পস্থলের কাছাকাছি বিদ্যুৎ চলে যায় ও টেলিফোন সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।
তবে একশ কিলোমিটার দূরের বুশেহের পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

প্রদেশের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রধান বলেছেন, ‘গেনাভেহ’র পানি, বিদ্যুৎ, টেলিযোগাযোগ ও গ্যাসের অবকাঠামোগুলোতে যে ছোটখাট ক্ষতি হয়েছে তা মেরামত করা হয়েছে।’

ইরানের অবস্থান কয়েকটি প্রধান টেকটনিক প্লেটের সীমানার ওপরে। এ কারণে দেশটিতে প্রায়শই ভূমিকম্পের ঘটনা ঘটে।

২০০৩ সালে ইরানের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের কাদা-ইটের তৈরি স্থাপনার শহর বামে ৬.৬ মাত্রার ভূমিকম্পে অন্তত ৩১ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছিল।

ইরানে সবচেয়ে ভয়াবহ ভূমিকম্প ঘটেছিল ১৯৯০ সালে। দেশটির উত্তরাঞ্চলে ৭.৪ মাত্রার এই ভূমিকম্পে ৪০ হাজার মানুষ নিহত ও তিন লাখ মানুষ আহত হয়েছিলেন। এছাড়া পাঁচ লাখ মানুষ গৃহহীন হয়ে পড়েছিলেন।