অভয়নগরে নৌকার নির্বাচনী অফিস ভাংচুর

এবিসি বাংলা ডেস্কএবিসি বাংলা ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  09:28 PM, 30 March 2019

অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি: অভয়নগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতিকের দুইটি নির্বাচনী অফিসে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার মধ্যরাতে একই সময় উপজেলার পায়রা ইউনিয়নের টিয়াডাঙ্গা মোড়ে ও শুভরাড়া ইউনিয়নের হিদিয়া ব্রীজ সংলগ্ন নৌকার নির্বাচনী অফিসে এই ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। পড়ুন>>>কাল রোববার যশোরের ৮টি উপজেলার মধ্যে ৭টিতে ভোট

শনিবার সিইসি (প্রধান নির্বাচন কমিশনার), উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও অভয়নগর থানায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর পক্ষ থেকে পৃথক অভিযোগ করা হয়েছে।
পায়রা ইউনিয়নের টিয়াডাঙ্গা ওয়ার্ড আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক জানান, শুক্রবার মধ্যরাতে নৌকার নির্বাচনী অফিসে প্রতিপক্ষ আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থীর কর্মী ও সমর্থকরা অতর্কিতে হামলা চালিয়ে টেবিল-চেয়ার ভাংচুর ও কাঠের তৈরি নৌকা প্রতীকে আগুন ধরিয়ে পালিয়ে যায়।
শুভরাড়া ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক মহির খা জানান, শুক্রবার মধ্যরাতে আনারস প্রতীকের চেযারম্যান প্রার্থীর চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা দেশীয় অস্ত্র সহকারে হিদিয়া ব্রীজ সংলগ্ন নৌকার নির্বাচনী অফিসে হামলা চালিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে গ্রামবাসী এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়।
এ ঘটনায় শনিবার নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক শাহ্ ফরিদ জাহাঙ্গীর তাঁর নির্বাচনী অফিস ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের বিচার দাবি করে সিইসি, উপজেলা নির্বাচন ও সহকারি রিটার্নিং অফিসার এবং অভয়নগর থানায় হামলাকারীদের নাম উল্লেখ করে পৃথক দুটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী রবিন অধিকারী ব্যাচা বলেন নৌকার অফিস ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের বিষয়ে কিছই জানা না। তাঁর কর্মী-সমর্থকরা এসব কর্মকান্ডের সাথে জড়িত না ।

খুলনা বিভাগ

আপনার মতামত লিখুন :