অনৈতিক প্রস্তাবে সাড়া না দেয়ায় নারীকে পিটিয়ে জখম

12

মণিরামপুর প্রতিনিধি:অনৈতিক প্রস্তাবে সাড়া না দিয়ে চিৎকার দেয়ায় সাথী খাতুন (২৫) নামে এক স্বামী পরিত্যক্তাকে পিটিয়ে হাত ভেঙ্গে দিয়েছে দুই বখাটে। সোমবার রাত ৯টার দিকে যশোরের মণিরামপুরের কাজিয়াড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মারপিটের শিকার একই গ্রামের মৃত. আব্দুর রহিমের মেয়ে সাথী মণিরামপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় ওই দ্ইু যুবকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। এতে ক্ষেপেছে অভিযুক্ত ওই দুই বখাটে। তাদের হুমকিতে চরম নিরাপত্তাহীনতা রয়েছেন সাথীর পরিবার।
জানাযায়, ঘটনার রাত ৯টার দিকে মরা সাপ ফেলতে বাড়ির বাইরে আসলে পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে থাকা প্রতিবেশি মশিয়ার বিশ্বাসের ছেলে সুমন হোসেন (২২) ও কামাল মোল্ল্যার ছেলে তহিদুল ইসলাম (৩৫) সাথীকে জাপটে ধরে। এসময় তারা সাথীকে অনৈতিক প্রস্তাব দেয়। এ সময় সাথী চিৎকার দিলে মুখ চেপে ধরে তাকে বেধড়ক পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে বাড়ির লোকজন এগিয়ে আসলে দুই বখাটে পালিয়ে যায়। সোমবার রাতেই সাথীকে মণিরামপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
ডাঃ মোসাব্বিরুল ইসলাম রিফাত জানান, মারপিটের শিকার সাথী খাতুনের বাম হাতের হাড় সম্পূর্ণ ভেঙ্গে গেছে। এছাড়া শরীরের বিভিন্ন অংশ থেতলে গেছে।
চিকিৎসাধীন সাথী জানান, প্রতিবেশি তহিদ এবং সুমন নামের দুই বখাটে দীর্ঘদিন তাকে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলো। ঘটনার রাতে বাড়িতে একটি সাপ মারা হয়েছিল। ওই মরা সাপ ফেলতে বাড়ির পিছনে গেলে ওই দুই বখাটে জাপটে ধরে।
গ্রামাবাসী জানান, তহিদুল ইসলাম বিস্ফোরক, নাশকতা, অগ্নিসংযোগ, গাছ চুরি ও মারামারিসহ একাধিক মামলার আসামি। সুমন ও তহিদুল এরাকায় মাদক ও সুদে ব্যবসার সিন্ডিকেট গড়ে তুলেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পুলিশ তাদের আটক করতে পারেনি।